রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১০:৫০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আ.লীগ জনগণের কাঁধে চেপে বসেছে: জিএম কাদের হামাসের অভিযানে আরও ১৫ ইসরাইলি সেনা নিহত বাংলাদেশ ব্যাংকে কি তাহলে ঋণখেলাপিরা ঢুকবে, প্রশ্ন রিজভীর বিএনপি নেতা ইশরাক কারাগারে উপজেলা নির্বাচনে ব্যবসায়ী প্রার্থীদের দাপট অক্ষুণ্ণ: টিআইবি বাজারে থাকা এসএমসি প্লাসের সব ড্রিংকস প্রত্যাহারের নির্দেশ ভ্যাট বসলে মেট্রোরেলের সুনাম নষ্ট হবে : কাদের জাতীয় এসএমই পুরস্কার-২০২৩ পেলেন ৭ উদ্যোক্তা তরুণদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী পঞ্চম বাংলাদেশি হিসেবে বাবর আলীর এভারেস্ট জয় ঝুঁকিতে ৪৫ হাজার কোটি রুপির ভারতীয় মসলার বাজার যুদ্ধের মধ্যেই ইসরায়েলের সরকারে ভাঙনের সুর জীবন বাঁচাতে রাফা ছেড়েছেন ৮ লাখ ফিলিস্তিনি : জাতিসংঘ শরণার্থী শিবিরে ইসরায়েলি হামলা, নিহত অন্তত ১৭ রাজা চার্লসের চেয়েও বেশি সম্পদ ঋষি সুনাকের

অদ্ভুত সব কাণ্ড যেন অহেতুক ভাইরাল হওয়ার নেশা

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ২৭, ২০২২
অদ্ভুত সব কাণ্ড যেন অহেতুক ভাইরাল হওয়ার নেশা
পদ্মা সেতুতে অদ্ভুত সব কাণ্ড যেন অহেতুক ভাইরাল হওয়ার নেশা (ভিডিও)

নেচে গেয়ে টিকটক, গান বাজিয়ে উদ্দাম নৃত্য, মূত্র বিসর্জন কিংবা নাট-বল্টু খুলে ফেলা—এমনই সব অদ্ভুত ঘটনার সঙ্গী হচ্ছে পদ্মা সেতু। সবাই যেন অহেতুক ভাইরাল হওয়ার নেশায় মত্ত। ফলে প্রশাসনও কঠোর হচ্ছে। বিশ্লেষকদের মতে, আগে নিজেকে বদলাতে হবে। আর এদিকে নাট-বল্টু খুলে ফেলা যুবক বায়েজিদকে ৭ দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

কে কাকে পেছনে ফেলে, কে-ই-বা কার আগে যাবে—এ যেন স্বপ্ন ছোঁয়ার এক বেপরোয়া প্রতিযোগিতা। যে জোয়ার প্রমত্তা পদ্মার চেয়েও ভয়ংকর।

শুরুর দিন থেকেই স্বপ্নের পাটাতনে এপার-ওপার পাড়ি দেবার গল্প যতটা, তার চেয়েও বেশি যেন নিয়ম ভাঙার বাড়াবাড়ি। যেখানে দাঁড়াবার নয়, সেখানে ফটোসেশন, নামাজ, মূত্র বিসর্জন কিংবা টিকটকের চটকদার নাচ। শুধু তাই নয়, গল্পগুজব ও ডিজে পার্টিও চলছে।

সব মিলিয়ে যেন নিজেকে জাহির করার ও প্রথম হবার এক অসুস্থ মানসিকতা। তা না হলে নাট-বল্টু খুলে স্বপ্নটাকেই ক্ষত-বিক্ষত করত না। যদিও তাদেরই একজন ধরা পড়েছে।

সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার রেজাউল মাসুদ বলেন, বায়েজিদ তালহা। সে ভিডিওটা করে তার আইডি থেকে আপলোড করেছে। এখানে তার দোষ রয়েছে, এ কারণে আমরা মামলাটি রেকর্ড করেছি।

অনেকে স্বপ্ন দেখতে এসে পরিবারকেই ডুবিয়ে গেল দুঃস্বপ্নের পদ্মায়। এ যেন অনেকটা অঘটির ঘটি হলো, জল খেতে খেতে প্রাণটা গেল। যদিও আবেগ থাকবেই তবে সেই উন্মাদনা যদি হয় এমন বেপরোয়া, তাহলে সে গতি রুখবে কে?

বুয়েটের সহকারী অধ্যাপক সাইফুন নেওয়াজ বলেন, এটা কেপিআইভুক্ত এলাকা। সে আচরণটা কী হবে তা সরকার নির্ধারণ করবে। পাশাপাশি যারা নাগরিক রয়েছে তাদেরও মেনে চলা উচিত।

সভ্য আচরণগুলোই মানুষকে ভদ্র করে তোলে, যার জন্য নামমাত্র কোনো টোল দিতে হয় না। প্রয়োজন শুধু চেক ইন আর চেক আউটের বাইরে সু-শিক্ষার। আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অসামাজিক না হয়ে সত্যিকারের সামাজিক হবার অভিপ্রায়।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ