শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৮:১১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কোটাবিরোধীদের আন্দোলন থামানো উচিত : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘কোটাবিরোধীদের অনেক বক্তব্য সংবিধানের মূলনীতির বিরোধী’ দেশে এখন দুর্নীতি ফাঁসের মৌসুম চলছে : রিজভী কোটা সংস্কার আন্দোলন অন্যদিকে ধাবিত করার চেষ্টা চলছে : ডিবিপ্রধান কোটাবিরোধীদের ভাঙচুর-হামলার জেরে পুলিশের মামলা দায়ের ‘ব্যাংকিং খাত এখন দুরবস্থার মধ্যে রয়েছে’ ডিসেম্বরেও উৎপাদনে যাচ্ছে না পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে দিল্লি, মুম্বাইসহ বেশ কিছু রাজ্য গাজার মানবিক অঞ্চলে বিমান হামলা, নিহত ৭১ গাজার ৭০ হাজারের বেশি মানুষ হেপাটাইটিসে আক্রান্ত নেপালে ১৬ বছরে ১৪ বার সরকার বদল? যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপ আয়োজন করে কোটি টাকা খুইয়েছে আইসিসি ‘পদক নয়, নিজেদের উন্নতি করতে অলিম্পিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার : শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর প্রতিশ্রুতিও বাস্তবায়নে পদক্ষেপ নেব: বিজয়ী নাসিক মেয়র আইভী

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জানুয়ারি ১৬, ২০২২

বৃত্তান্ত প্রতিবেদক: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে তৃতীয় বার নির্বাচিত হয়েছেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

ঘোষিত ১৯২টি কেন্দ্রের বেসরকারি ফলাফলে দেখা যায়, মেয়র পদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত আইভী নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন এক লাখ ৬১ হাজার ২৭৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার হাতি প্রতীকে পেয়েছেন ৯২ হাজার ১৭১ ভোট।

আইভী ও তৈমূর আলম ছাড়া মেয়র পদে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের এ বি এম সিরাজুল মামুন (দেয়ালঘড়ি), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মাছুম বিল্লাহ (হাতপাখা), বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির রাশেদ ফেরদৌস (হাতঘড়ি), বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের মো. জসিম উদ্দিন (বটগাছ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল ইসলাম (ঘোড়া) লড়াই করেছেন।

নির্বাচনে জিতেই দেওয়া প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া আইভী বলেন, নির্বাচনে তিনি জনগণকে দেওয়া সকল প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে কাজ করবেন। দলমত নির্বিশেষে সকলকে নিয়ে তিনি তার কাজগুলো এগিয়ে নেবেন।

একইসঙ্গে তিনি নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকারের প্রতিশ্রুতিগুলোও তার সঙ্গে আলোচনা করে বাস্তবায়নের পদক্ষেপ নেবেন বলেও অঙ্গীকার করেন।

রোববার রাতে নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগ চেয়ারম্যানবাড়ীতে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

নির্বাচনে জয়লাভের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় আইভী জানিয়েছেন, পরাজিত প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকারের বাসায় তিনি মিষ্টি নিয়ে যাবেন। তার পরামর্শ নিয়ে এই মেয়াদে কাজ করবেন।

নবনির্বাচিত মেয়র বলেন, ‘চাচা অনুমতি দিলেও যাবো, না দিলেও যাবো। চাচার বাসায় মিষ্টি নিয়ে যাবো। চাচা যেসব অভিযোগ করেছেন, চাচার পরামর্শ নিয়ে কাজ করবো।’

শামীম ওসমান অভিনন্দন জানিয়েছেন কি না, জানতে চাইলে আইভী বলেন, ‘এখনো অভিনন্দন জানাননি। হয়তো জানাবেন।’

জয়ে নারায়ণগঞ্জবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে তিনি বলেন, ‘আমি অযথা আশ্বাস দেইনি। আমার দল আমার প্রতি আস্থা রেখেছে। প্রমাণিত হয়েছে নারায়ণগঞ্জের মাটি আওয়ামী লীগের ঘাঁটি। দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে জনকল্যাণে কাজ করবো।’

এর আগে ২০১১ সালে প্রথমবার এবং ২০১৬ সালে দ্বিতীয়বার জয়ী হয়েছিলেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে। এরপর ফলাফল আসতে থাকে। নাসিক নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার ফল ঘোষণা করেন। সন্ধ্যা নাগাদই আইভীর জয়ের আভাস মিলতে থাকে। শেষ পর্যন্ত তার জয়েরই খবর আসে।

ঘোষিত ১৯২টি কেন্দ্রের বেসরকারি ফলাফলে দেখা যায়, মেয়র পদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত আইভী নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন এক লাখ ৬১ হাজার ২৭৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার হাতি প্রতীকে পেয়েছেন ৯২ হাজার ১৭১ ভোট।

নাসিকের ২৭ ওয়ার্ডের ১৯২টি ভোটকেন্দ্রে এক হাজার ৩৩৩ ভোটকক্ষে হয় নির্বাচন। ইভিএম পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে পাঁচ লাখ ১৭ হাজার ৩৬১ জন ভোটারের বিপরীতে প্রায় ৫০ শতাংশ ভোট পড়ে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনে বড় ধরনের কোনো অনিয়ম বা সংঘাতের অভিযোগ পাওয়া যায়নি।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ