বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:১৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা তুলছেনা ভারত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট থেকেও সরে দাঁড়ালেন সাকিব দেশে অনেক ছোট দল আছে, বিএনপি তেমন একটি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফের জামিন মঞ্জুর, মুক্তিতে বাধা নেই দখলদার সরকার ঐতিহ্যগতভাবেই জনগণকে শত্রুপক্ষ ভাবে: রিজভী আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম বাংলাদেশি হাফেজ ৫ লাখ শিক্ষক-কর্মচারীকে ৬ মাসের মধ্যে অবসর সুবিধা প্রদানের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন পোশাক রপ্তানির লক্ষ্য অর্জন নিয়ে শঙ্কা দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে আ. লীগ: প্রধানমন্ত্রী যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত জি কে শামীমের জামিন দারুণ জয়ে মৌসুম শুরু ইন্টার মায়ামির মেসির রেকর্ডটা ভেঙে দিলেন লেভানদফস্কি হাসপাতালে বোমা হামলা চালিয়েছে মিয়ানমার সেনা রাশিয়াকে অত্যাধুনিক ৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র পাঠিয়েছে ইরান

ইউরোপা লীগ থেকে ছিটকে গেল বার্সেলোনা

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : এপ্রিল ১৫, ২০২২

ইউরেরাপা লীগ থেকে ছিটকে গেল টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট বার্সেলোনা। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত কোয়ার্টার ফাইনালে এইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টের কাছে পরাজিত হয়েছে কাতালান জায়ান্টরা। অন্য ম্যাচে জয় নিয়ে আরবি লিপজিগের সঙ্গে আসরের শেষ চারে জায়গা করে নিয়েছে ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেড ও রেঞ্জার্স।
ক্যাম্পন্যুয়ে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ৩-২ গোলে পরাজিত হয়েছে বার্সেলোনা। ফ্রাঙ্কফুর্টের হয়ে দুই অর্ধে দুই গোল করেন সার্বিয় আন্তর্জাতিক ফিলিপ কস্টিক। দলের হয়ে তৃতীয় গোলটি করেন রাফায়েল স্যান্তোষ বোরে। ম্যাচের শেষভাগে ঘুরে দাঁড়ানোর চেস্টা করলেও শেষ পর্যন্ত মাত্র দুটি গোল পরিশোধ করতে পেরেছে বার্সা। ফলে দুই লেগে ৪-৩ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে শেষ চারে স্থান করে নেয় ফ্রাঙ্কফুর্ট।

ইনজুরি সময়ের (৯০+১ মি.) শুরুতে বার্সেলোনার হয়ে প্রথম গোলটি পরিশোধ করেন সার্জিও বাসকুইটস। ইনজুরি টাইমের একেবারে শেষ সময়ে (৯০+১১ মি.) পেনাল্টি থেকে স্বাগতিকদের হয়ে আরেকটি গোল পরিশোধ করেন মেমফিস ডিপে। ম্যাচটি উপভোগ করতে জার্মানি থেকে আনুমানিক ৩০ হাজার সমর্থক বার্সেলোনা সফরে গিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত তাদের ওই সফর স্বার্থক হয়েছে।

এই নিয়ে চার মৌসুমে দ্বিতীয়বারের মতো ইউরোপা লিগের শেষ চারে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে ফ্রাঙ্কফুর্ট। ২০১৯ সালে অবশ্য এই পর্যায়ে এসে চেলসির কাছে টাইব্রেকারে হেরে গিয়েছিল জার্মান ক্লাবটি।
খেলা শেষে ফ্রাঙ্কফুর্টের গোল রক্ষক কেভিন ট্র্যাপ বলেন,‘ আমি বাকরুদ্ধ হয়ে গেছি। সত্যিকারার্থে কেউ এমনটা আশা করেনি। সবাই ধারনা করেছিল আমাদের ধুকতে হবে।’

সম্প্রতি জাভি হার্নান্দেজের তত্বাবধানে বেশ ভালোভাবেই ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছির বার্সেলোনা। তবে এই পরাজয়ের অর্থ হচ্ছে পুরো মৌসুম জুড়ে তারা ইউরোপীয় আসরে নিজেদের মাঠে একটি মাত্র জয়ের দেখা পেয়েছে। একই সঙ্গে শিরোপা ছাড়াই মৌসুম শেষ করতে যাচ্ছে ক্লাবটি।

বার্সা কোচ জাভি বলেন,‘ এটি আমাদের জন্য বিশাল এক বিপর্যয়। তারা যোগ্য দল হিসেবেই পরের রাউন্ডে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে ।’

গতকাল অনুষ্ঠিত ম্যাচের চতুর্থ মিনিটের মধ্যেই পেনাল্টির গোল হজম করে পিছিয়ে পড়ে বার্সেলোনা। এরিক গার্সিয়ার ফাউলের বলটি পেনাল্টি থেকে জালে জড়ান কস্টিক। এতেই উদ্বেলিত হয়ে উঠে সফরকারী দর্শকরা।

ম্যাচের ৩৬ মিনিটে ফের গোল করে এগিয়ে যায় জার্মান ক্লাবটি। পোস্টের বেশ কাছ থেকে দারুন শটে লক্ষ্যভেদ করেন ক্লাবটির কলম্বিয় তারকা বোরে। দ্বিতীয়ার্ধে ৬৭ মিনিটে নিচু শটে কস্টিক ফের গোল করলে ৩-০ ব্যবধানে লিড পেয়ে যায় সফরকারী ফ্রাঙ্কফুর্ট।

ইনজুরি টাইমের প্রথম মিনিটে আনুমানিক ২০ মিটার দূর থেকে অসাধারণ শটে একটি গোল পরিশোধ করার আগে ম্যাচের শেষ দিকে বাসকুইটসের একটি গোল অফসাইডের কারণে বাতিল করেন কর্তব্যরত রেফারি। ম্যাচের অতিরিক্ত সময় বাবদ যোগ করা ১১ মিনিটের সময় পেনাল্টি থেকে বার্সার হয়ে আরেকটি গোল পরিশোধ করেন ডিপে।

এদিকে ১৯৬০ সালে ইউরোপীয় কাপের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে পরাজিত হবার পর স্প্যানিশ কোন ক্লাবের কাছে আর পরাজিত হতে হয়নি ফ্রাঙ্কফুর্টকে। গতকালও সেই ধারা ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে জার্মান ক্লাবটি। সেমি- ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ ওয়েস্টহ্যাম ইউনাইটেড।

গতকাল ইংলিশ ওই ক্লাবটি ফরাসি প্রতিপক্ষ লিয়ঁকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে। ফলে দুই লেগে ৪-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে শেষ চারে জায়াগা করে নিয়েছে ওয়েস্টহ্যাম। ১৯৭৬ সালে কাপ ফাইনালে আন্ডারলেখট এর কাছে হেরে যাওয়ার পর প্রথমবারের মতো ইউরোপীয় আসরের সেমি-ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করলো ক্লাবটি।

এর আগে আটালান্টায় স্বাগতিকদের ২-০ গোলে হারিয়ে দুই লেগে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করে জার্মানির আরেক জায়ান্ট আরবি লিপজিগ। একই রাতে গ্লাসগোতে অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো নাটকীয় এক ম্যাচে পুর্তগীজ ক্লাব ব্রাগাকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দুই লেগে ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ২০০৮ সালের পর প্রথমবারের মতো ইউরোপীয় আসরের সেমিতে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে স্বাগতিক রেঞ্জার্স। সর্বশেষ ২০০৮ সালে উয়েফা কাপের ফাইনাল খেলেছিল স্কটিশ ক্লাবটি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ