শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বাঙালির সব অর্জন আ. লীগের হাত ধরে এসেছে: প্রধানমন্ত্রী সত্য তথ্য দিয়ে ভুল তথ্যকে চ্যালেঞ্জ জানাতে চাই : তথ্যপ্রতিমন্ত্রী বিএনপি ধপাস করে পড়ে গেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা তুলছেনা ভারত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট থেকেও সরে দাঁড়ালেন সাকিব দেশে অনেক ছোট দল আছে, বিএনপি তেমন একটি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফের জামিন মঞ্জুর, মুক্তিতে বাধা নেই দখলদার সরকার ঐতিহ্যগতভাবেই জনগণকে শত্রুপক্ষ ভাবে: রিজভী আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম বাংলাদেশি হাফেজ ৫ লাখ শিক্ষক-কর্মচারীকে ৬ মাসের মধ্যে অবসর সুবিধা প্রদানের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন পোশাক রপ্তানির লক্ষ্য অর্জন নিয়ে শঙ্কা দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে আ. লীগ: প্রধানমন্ত্রী যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত জি কে শামীমের জামিন দারুণ জয়ে মৌসুম শুরু ইন্টার মায়ামির

এশিয়া কাপের ভাগ্য নির্ধারিত হবে আইপিএলের ফাইনালে

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : এপ্রিল ১৮, ২০২২

আগামী এশিয়া কাপ শ্রীলংকার মাটিতে অনুষ্ঠিত হবে কি-না, সেটিই চলমান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ফাইনালের দিন নির্ধারিত হবে। এমনটাই জানিয়েছেন এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সচিব জয় শাহ। আগামী ২৯ মে অনুষ্ঠিত হবে আইপিএলের ফাইনাল।

২৭ আগস্ট থেকে শ্রীলংকার মাটিতে শুরু হবার কথা এশিয়া কাপ। কিন্তু গত কয়েক মাস ধরে শ্রীলংকার পরিস্থিতি উত্তাল। দেশ জুড়ে আর্থিক সঙ্কট, রাজনৈতিক টানাপোড়েন, ভয়াবহ মুদ্রস্ফীতি, জ্বালানি সংকট, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ঘাটতি ও উচ্চম্ল্যূ, দিনে দীর্ঘসময়ের লোডশেডিংয়ে নাকাল পুরো শ্রীলংকা। এই পরিস্থিতিতে শ্রীলংকায় এশিয়া কাপ আয়োজন নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।
এশিয়া কাপ শ্রীলংকায় হবে কি-না সে বিষয়ে আইপিএল ফাইনালের দিন সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান জয়।

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে জয় বলেন, ‘শ্রীলংকার পরিস্থিতি নিয়ে সে দেশের ক্রিকেট সংস্থার কর্মকর্তাদের সাথে আমার কথা হয়েছে। সুরক্ষিতভাবে এশিয়া কাপ আয়োজনের বিষয়ে আশাবাদী শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। ২৯ মে আইপিএলের ফাইনালের দিন এসএলসির কর্মকর্তারা মুম্বাই আসবেন। সে দিনই এশিয়া কাপ নিয়ে তাদের সাথে আলোচনা হবে।’

করোনাভাইরাসের কারনে ২০২০ ও ২০২১ সালের এশিয়া কাপ পিছিয়ে দেয়া হয় এক বছর। ২০২২ সালে পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হওয়ায় এশিয়া কাপ আয়োজন নিয়ে আশাবাদি হয়েছিলো এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ