মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭:০৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
পঞ্চগড়ে মন্দিরগামীদের নিয়ে নৌকাডুবি, ২৪ জনের লাশ উদ্ধার, অনেকেই নিখোঁজ ডিএনসিসি মেয়র, ওয়াসা এমডিকে কারাগারে পাঠাতে চান নদী কমিশন চেয়ারম্যান নতুন মূল্য নির্ধারণ: পাম অয়েলে কমলো ১২ টাকা, চিনিতে ৬ টাকা বেনজীরের বিদায়, পুলিশের নতুন আইজি মামুন, র‌্যাবের ডিজি খুরশীদ ডলারে অতিরিক্ত মুনাফার অভিযোগ থেকে মুক্ত ছয় ব্যাংকের ট্রেজারি কর্তারা শত অনিয়মের আখড়া ছিল ই-ভ্যালি, ছিলনা আয়-ব্যয়ের হিসাব ১৬ কোটি মানুষের কাছে কৃতজ্ঞতা সাফজয়ী অধিনায়ক সাবিনার ল্যাব থাকলেও টেস্ট ছাড়াই হালাল সনদ দেয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইন্টারন্যাশনাল লিজিং ও সোনার বাংলা ক্যাপিটাল’র আমানত-দায় শেয়ারে রূপান্তর, চুক্তি সকল শক্তি দিয়েও নদী দখলকারীদের উচ্ছেদ করা যাচ্ছেনা: টুকু হংকংকে হারিয়ে সুপার ফোর নিশ্চিত করল ভারত প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা ষড়যন্ত্রে সরকারি দলের লোকজন জড়িত হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া বিএনপি-জামাতের সম্পর্ক ভেতরে অটুট: কাদের দেশে জ্বালানি তেলের নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ অব্যাহত থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

কানাডায় ১০ লাখের বেশি শূন্যপদে চাকরির সুযোগ

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : আগস্ট ৭, ২০২২
কানাডায় ১০ লাখের বেশি শূন্যপদে চাকরির সুযোগ

শূন্যপদে ১০ লাখেরও বেশি লোক লাগবে কানাডায়। গেলে বছরের মে মাসের পর দেশটিতে তিন লাখের বেশি শূন্য পদের সংখ্যা বেড়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি রোববার এক প্রতিবেদনে জানায়, চলতি বছরের মে মাসে কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর সংখ্যা জানতে একটি জরিপ চালায় কানাডা সরকার। এতে দেশটির বিভিন্ন শিল্প খাতে শ্রমিকসংকটের তথ্য উঠে আসে।

কানাডার কর্মক্ষম ব্যক্তিদের বয়স বেড়ে যাওয়া ও অবসরে চলে যাওয়ায় শ্রমিকসংকট দেখা দিয়েছে। এ জন্য দেশটিতে অভিবাসীদের চাহিদা বেড়ে গেছে বলে জরিপে উঠে এসেছে।

কানাডার সংবাদমাধ্যম সিআইসি নিউজ জানায়, কানাডা সরকার চলতি বছরে এযাবৎকালের সর্বোচ্চসংখ্যক ৪ লাখ ৩০ হাজার মানুষকে স্থায়ী নাগরিকত্ব দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। ২০২৪ সাল নাগাদ এই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াতে পারে সাড়ে ৪ লাখে।

চলমান এ অবস্থায় দেশটিতে বেকারত্বের হার তলানিতে নেমে গেছে। অপর দিকে বহু নতুন চাকরির সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। এ ক্ষেত্রে খালি পদে চাকরির সুযোগ তৈরি হয়েছে অভিবাসীদের জন্য।

আরেকটি জরিপে দেখা গেছে, কানাডার নির্দিষ্ট কিছু রাজ্যে অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি পদ খালি রয়েছে। আলবার্টা ও অন্টারিও প্রদেশে গত বছর প্রতিটি শূন্য পদের বিপরীতে বেকার মানুষের সংখ্যা ছিল ২ দশমিক ৪ শতাংশ।

তা কমে মার্চ মাসে নেমে আসে ১ দশমিক ২ শতাংশে। আরও কমে এপ্রিল মাসে হয় ১ দশমিক ১ শতাংশ। বিভিন্ন পেশাজীবী, বৈজ্ঞানিক কর্মকাণ্ড ও কারিগরি সেবা, পরিবহন ও গুদামজাতকরণ, ফিন্যান্স ও ইনস্যুরেন্স, বিনোদন ও আবাসন খাত—সব কটিতেই রেকর্ডসংখ্যক মানুষের চাকরির সুযোগ রয়েছে।

এ ছাড়া আবাসন নির্মাণ খাতেও গত এপ্রিলে শ্রমিকের চাহিদা যেকোনো সময়ের চেয়ে সবচেয়ে বেশি হয়। তখন এই খাতে ৮৯ হাজার ৯০০ মানুষের চাহিদা ছিল। এই সংখ্যা গত বছরের এপ্রিল মাসের তুলনায় প্রায় ৪৫ শতাংশ বেশি।

আরেকটি জরিপের তথ্য অনুযায়ী, গত মে মাসে নোভা স্কটিয়া ও মানিটোবায় বাসাবাড়ি ও ফুড সার্ভিস খাতে ১ লাখ ৬১ হাজার করে শ্রমিকের চাহিদা ছিল।

এই পরিস্থিতির কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, কানাডার অল্পসংখ্যক মানুষ কর্মক্ষেত্রে ঢুকতে চাইছেন। আর ৫৫ বছরের বেশি বয়সীরা অবসরে যাচ্ছেন। এসব কারণে এ বছর কানাডার শ্রমবাজারে অস্বাভাবিক শ্রমিকসংকট দেখা দিয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ