শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৭:৫৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কোটাবিরোধীদের আন্দোলন থামানো উচিত : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘কোটাবিরোধীদের অনেক বক্তব্য সংবিধানের মূলনীতির বিরোধী’ দেশে এখন দুর্নীতি ফাঁসের মৌসুম চলছে : রিজভী কোটা সংস্কার আন্দোলন অন্যদিকে ধাবিত করার চেষ্টা চলছে : ডিবিপ্রধান কোটাবিরোধীদের ভাঙচুর-হামলার জেরে পুলিশের মামলা দায়ের ‘ব্যাংকিং খাত এখন দুরবস্থার মধ্যে রয়েছে’ ডিসেম্বরেও উৎপাদনে যাচ্ছে না পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে দিল্লি, মুম্বাইসহ বেশ কিছু রাজ্য গাজার মানবিক অঞ্চলে বিমান হামলা, নিহত ৭১ গাজার ৭০ হাজারের বেশি মানুষ হেপাটাইটিসে আক্রান্ত নেপালে ১৬ বছরে ১৪ বার সরকার বদল? যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপ আয়োজন করে কোটি টাকা খুইয়েছে আইসিসি ‘পদক নয়, নিজেদের উন্নতি করতে অলিম্পিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার : শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

কিংবদন্তি পেলের যে রেকর্ডগুলো এখনও অক্ষত

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : এপ্রিল ২৬, ২০২২

বিশ্বকাপজয়ী সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হওয়া থেকে শুরু করে সেলেসাওদের হয়ে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক আন্তর্জাতিক গোল করাসহ বেশ কিছু দুর্দান্ত উচ্চতা অর্জন করেন পেলে। এক পর্যায়ে ব্রাজিলকে তিনি বিশ্বমঞ্চে টানা তিন শিরোপা জয়ী প্রথম দল হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন।

এই কিংবদন্তির বহু রেকর্ড এখনো কেউ ভাঙতে পারেননি। চলুন একনজরে দেখে নেয়া যাক ফুটবল সম্রাটের যে রেকর্ডগুলো এখনও অক্ষত রয়েছে।

সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ ও জয়
১৯৫৮ সালের বিশ্বকাপে সবচেয়ে কম বয়সী ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছিলেন পেলে। আর সেবারই প্রথম বিশ্বকাপ জেতে সেলেসাওরা। তখন পেলের বয়স ছিল ১৭ বছর ২৪৯ দিন। সুইডেনের সোলনায় রাসুন্দা স্টেডিয়ামে স্বাগতিকদের ৫-২ ব্যবধানে হারিয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ ট্রফি ঘরে তুলেছিল ব্রাজিল। সেখানে জোড়া গোল করেন পেলে।

ব্রাজিলের হয়ে সর্বোচ্চ গোল
আন্তর্জাতিক ফুটবলে সেলেসাওদের হয়ে সর্বোচ্চ গোলের মালিক এ কিংবদন্তি ফরোয়ার্ড। ফিফার স্বীকৃত ৯২ ম্যাচে ৭৭ গোল করেছেন পেলে। পাঁচ দশক ধরে রেকর্ডটি পেলের কাছেই রয়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন বর্তমানে ব্রাজিলের সেনসেশন নেইমার। এই ফরোয়ার্ড করেছেন ৭১ গোল।

ফিফা বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ শিরোপা
পেলে ব্রাজিলের হয়ে ১৯৫৮, ১৯৬২ এবং ১৯৬৬ সালে টানা তিন বিশ্বকাপ জিতেছেন। পৃথিবীর অন্য কোনো ফুটবলারের এত বিশ্বকাপ জেতার কীর্তি নেই।

বিশ্বকাপের মঞ্চে সর্বোচ্চ অ্যাসিস্ট
এই ব্রাজিলিয়ান মোট চারটি বিশ্বকাপ খেলেছেন। ১৯৫৮, ৬২, ৬৬ ও ৭০ সালের বিশ্বকাপে মাঠে নেমেছিলেন পেলে। এই চার বিশ্বকাপে ১০টি অ্যাসিস্ট করেছেন পেলে। এরমধ্যে ১৯৭০ সাল মোট ছয়টি অ্যাসিস্ট করেছেন পেলে। এক আসরে যা সর্বোচ্চ।

বিশ্বকাপের মঞ্চে কম বয়সী ফুটবলার হিসেবে গোল
মাত্র ১৭ বছর বয়সে বিশ্বকাপের মঞ্চে গোল করেছেন পেলে। ১৯৫৮ সালের বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে ওয়েলসের বিপক্ষে গোল করেছিলেন পেলে। তার ওই গোলে সেমিফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিল পেলে।

কম বয়সী ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপের মঞ্চে হ্যাটট্রিক
১৯৫৮ সালের বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ফ্রান্সের বিপক্ষে ম্যাচে ৫-২ গোলে জেতা ম্যাচে ১৭ বছর ২৪৫ দিন বয়সে হ্যাটট্রিক করেন পেলে। যা সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার হিসেবে বিশ্বকাপের মঞ্চে হ্যাটট্রিক করার ইতিহাস।

এক ক্যালেন্ডার ইয়ারে সর্বোচ্চ গোল
সান্তোসের হয়ে ১৯৫৯ সালে ১২৭ গোল করেন পেলে। যা এক ক্যালেন্ডার ইয়ারে সর্বোচ্চ গোল। এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থান মেসির। ২০১২ সালে বার্সেলোনার হয়ে ৯১ গোল করেন এই আর্জেন্টাইন।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ