শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:২৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে দিল্লি, মুম্বাইসহ বেশ কিছু রাজ্য গাজার মানবিক অঞ্চলে বিমান হামলা, নিহত ৭১ গাজার ৭০ হাজারের বেশি মানুষ হেপাটাইটিসে আক্রান্ত নেপালে ১৬ বছরে ১৪ বার সরকার বদল? যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপ আয়োজন করে কোটি টাকা খুইয়েছে আইসিসি ‘পদক নয়, নিজেদের উন্নতি করতে অলিম্পিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার : শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা কোটা আন্দোলনে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি ভর করেছে: ওবায়দুল কাদের দেশে বদলে যাচ্ছে বন্যার ধরন গণতন্ত্রের জন্যও শিক্ষার্থীদের লড়াই করার আহ্বান আমির খসরুর সরকার পতনের আন্দোলনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে: মান্না কোটা সংস্কারের নামে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত স্বাধীনতাবিরোধীরা: আইনমন্ত্রী বাজারে সব পণ্যেই হাকিয়েছে সেঞ্চুরি নয়াদিল্লিতে বিমসটেক রিট্রিটে যোগ দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

খুলে দেওয়া হয়েছে ‘নুর সুলতান গ্র্যান্ড মসজিদ’

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : আগস্ট ১৮, ২০২২
খুলে দেওয়া হয়েছে ‘নুর সুলতান গ্র্যান্ড মসজিদ’

খুলে দেওয়া হয়েছে কাজাখস্তানের ‘নুর সুলতান গ্র্যান্ড মসজিদ’। দেশটির রাজধানী নুর সুলতানে অবস্থিত এটি মধ্য এশিয়ার সর্ববৃহৎ মসজিদ। এই মসজিদটিতে একসঙ্গে ২ লাখ ৩৫ হাজার মুসলি­ নামাজ আদায় করতে পারবে। মনোমুগ্ধকর এই মসজিদটি দেখতে ভিড় করতে শুরু করেছেন দর্শনার্থীরা।

মধ্য এশিয়ার দেশ কাজাখস্তানের রাজধানী নূর সুলতানে নির্মিত হয়েছে দৃষ্টিন্দন মসজিদ ‘নুর সুলতান গ্র্যান্ড মসজিদ’। এটি মধ্য এশিয়ার সর্ববৃহৎ মসজিদ। একইসাথে বিশ্বের সর্ববৃহৎ দশটি মসজিদেরও একটি। রাজধানীর নাম অনুসারেই এর নামকরণ করা হয়েছে। দৃষ্টিনন্দন এই মসজিদটির স্থাপত্যশৈলী যেনো নয়নাভিরাম।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নবনির্মিত এ মসজিদে অন্তত ২ লাখ ৩৫ হাজার মুসলি­ একসাথে নামাজ আদায় করতে পারবেন। একই সাথে প্রায় ৩০ হাজার দর্শনার্থী মসজিদটি ঘুরে দেখতে পারবেন। মসজিদটি নির্মাণ করা হয়েছে ১০ হেক্টর জায়গার ওপর। যার মধ্যে ভবনটি ৬৮ হাজার ৬২ বর্গমিটার এলাকাজুড়ে বিস্তৃত। মসজিদটির প্রধান গম্বুজের উচ্চতা প্রায় ৯০ মিটার এবং এর ব্যাস ৬২ মিটার। চারকোণায় থাকা চারটি মিনারের উচ্চতা ১৩০ মিটার। এছাড়াও রয়েছে ৭২ টি ছোট বড় সাদা ও নীল রঙের গম্বুজ।

মসজিদটির নকশা করেছে আরব আমিরাতের প্রতিষ্ঠান দেওয়ান ‘আর্কিটেক্টস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার’। এটি নির্মাণে ইসলামী ও ঐতিহ্যবাহী কাজাখ নির্মাণশৈলী অনুসরণ করা হয়েছে। এর প্রবেশদ্বার গুলোতে রয়েছে হাতে খোদায় করা ঐতিহ্যবাহী কাজাখ নকশা। মসজিদের পশ্চিম দিকের দেয়ালে নান্দনিক ডিজাইনে আকর্ষণীয় মোজাইক ব্যবহার করে লেখা হয়েছে আল­াহর পবিত্র ৯৯টি নাম। গত শুক্রবার মসজিদটি উদ্বোধন করা হয়। ২০১৯ সালে মসজিদটির নির্মাণকাজ শুরু হয়।

মসজিদটির পরিচালনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মধ্য এশিয়ার সর্ববৃহৎ মসজিদের দাবিদার হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের জন্য আবেদন করা হয়েছে।

এদিকে, গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকড অনুযায়ী বর্তমানে এশিয়ার সর্ববৃহৎ মসজিদ পাকিস্তানের ফয়সাল মসজিদ।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ