মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭:০৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
পঞ্চগড়ে মন্দিরগামীদের নিয়ে নৌকাডুবি, ২৪ জনের লাশ উদ্ধার, অনেকেই নিখোঁজ ডিএনসিসি মেয়র, ওয়াসা এমডিকে কারাগারে পাঠাতে চান নদী কমিশন চেয়ারম্যান নতুন মূল্য নির্ধারণ: পাম অয়েলে কমলো ১২ টাকা, চিনিতে ৬ টাকা বেনজীরের বিদায়, পুলিশের নতুন আইজি মামুন, র‌্যাবের ডিজি খুরশীদ ডলারে অতিরিক্ত মুনাফার অভিযোগ থেকে মুক্ত ছয় ব্যাংকের ট্রেজারি কর্তারা শত অনিয়মের আখড়া ছিল ই-ভ্যালি, ছিলনা আয়-ব্যয়ের হিসাব ১৬ কোটি মানুষের কাছে কৃতজ্ঞতা সাফজয়ী অধিনায়ক সাবিনার ল্যাব থাকলেও টেস্ট ছাড়াই হালাল সনদ দেয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইন্টারন্যাশনাল লিজিং ও সোনার বাংলা ক্যাপিটাল’র আমানত-দায় শেয়ারে রূপান্তর, চুক্তি সকল শক্তি দিয়েও নদী দখলকারীদের উচ্ছেদ করা যাচ্ছেনা: টুকু হংকংকে হারিয়ে সুপার ফোর নিশ্চিত করল ভারত প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা ষড়যন্ত্রে সরকারি দলের লোকজন জড়িত হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া বিএনপি-জামাতের সম্পর্ক ভেতরে অটুট: কাদের দেশে জ্বালানি তেলের নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ অব্যাহত থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

খুলে দেওয়া হয়েছে ‘নুর সুলতান গ্র্যান্ড মসজিদ’

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : আগস্ট ১৮, ২০২২
খুলে দেওয়া হয়েছে ‘নুর সুলতান গ্র্যান্ড মসজিদ’

খুলে দেওয়া হয়েছে কাজাখস্তানের ‘নুর সুলতান গ্র্যান্ড মসজিদ’। দেশটির রাজধানী নুর সুলতানে অবস্থিত এটি মধ্য এশিয়ার সর্ববৃহৎ মসজিদ। এই মসজিদটিতে একসঙ্গে ২ লাখ ৩৫ হাজার মুসলি­ নামাজ আদায় করতে পারবে। মনোমুগ্ধকর এই মসজিদটি দেখতে ভিড় করতে শুরু করেছেন দর্শনার্থীরা।

মধ্য এশিয়ার দেশ কাজাখস্তানের রাজধানী নূর সুলতানে নির্মিত হয়েছে দৃষ্টিন্দন মসজিদ ‘নুর সুলতান গ্র্যান্ড মসজিদ’। এটি মধ্য এশিয়ার সর্ববৃহৎ মসজিদ। একইসাথে বিশ্বের সর্ববৃহৎ দশটি মসজিদেরও একটি। রাজধানীর নাম অনুসারেই এর নামকরণ করা হয়েছে। দৃষ্টিনন্দন এই মসজিদটির স্থাপত্যশৈলী যেনো নয়নাভিরাম।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নবনির্মিত এ মসজিদে অন্তত ২ লাখ ৩৫ হাজার মুসলি­ একসাথে নামাজ আদায় করতে পারবেন। একই সাথে প্রায় ৩০ হাজার দর্শনার্থী মসজিদটি ঘুরে দেখতে পারবেন। মসজিদটি নির্মাণ করা হয়েছে ১০ হেক্টর জায়গার ওপর। যার মধ্যে ভবনটি ৬৮ হাজার ৬২ বর্গমিটার এলাকাজুড়ে বিস্তৃত। মসজিদটির প্রধান গম্বুজের উচ্চতা প্রায় ৯০ মিটার এবং এর ব্যাস ৬২ মিটার। চারকোণায় থাকা চারটি মিনারের উচ্চতা ১৩০ মিটার। এছাড়াও রয়েছে ৭২ টি ছোট বড় সাদা ও নীল রঙের গম্বুজ।

মসজিদটির নকশা করেছে আরব আমিরাতের প্রতিষ্ঠান দেওয়ান ‘আর্কিটেক্টস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার’। এটি নির্মাণে ইসলামী ও ঐতিহ্যবাহী কাজাখ নির্মাণশৈলী অনুসরণ করা হয়েছে। এর প্রবেশদ্বার গুলোতে রয়েছে হাতে খোদায় করা ঐতিহ্যবাহী কাজাখ নকশা। মসজিদের পশ্চিম দিকের দেয়ালে নান্দনিক ডিজাইনে আকর্ষণীয় মোজাইক ব্যবহার করে লেখা হয়েছে আল­াহর পবিত্র ৯৯টি নাম। গত শুক্রবার মসজিদটি উদ্বোধন করা হয়। ২০১৯ সালে মসজিদটির নির্মাণকাজ শুরু হয়।

মসজিদটির পরিচালনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মধ্য এশিয়ার সর্ববৃহৎ মসজিদের দাবিদার হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের জন্য আবেদন করা হয়েছে।

এদিকে, গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকড অনুযায়ী বর্তমানে এশিয়ার সর্ববৃহৎ মসজিদ পাকিস্তানের ফয়সাল মসজিদ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ