শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৯:১৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কুষ্টিয়ায় ফিলিং স্টেশনে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ২ আলোচিত-সমালোচিত লেখক সালমান রুশদির ওপর হামলা উন্নয়নের নৌকা এখন শ্রীলঙ্কার পথে: জি এম কাদের দেশে করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১৮ ভারতবর্ষের সকল ইতিহাসকে ছাপিয়ে গেছে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছে ফেলতে পারবে না : এনামুল হক শামীম কেনিয়ার টিভি চ্যানেলগুলো বন্ধ করে দিয়েছে ভোটের ফলাফল সম্প্রচার ‘অপ্রীতিকর পরিণতিতে পড়তে যাচ্ছেন পুতিন’ আওয়ামী লীগ মাঠে নামলে বিএনপি পালানোর অলিগলিও খুঁজে পাবে না ‘হারিকেন দিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না বিএনপিকে’ আন্তর্জাতিক বাজারে স্বর্ণের দর পড়েছে ‘আইএমএফ’ এর কাছে যেসব শর্তে যতবার ঋণ নিয়েছে বাংলাদেশ হারের লজ্জা নিয়ে দেশে ফিরলেন মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা টি-টোয়েন্টিতে ব্রাভোর অনন্য রেকর্ড বাংলাদেশের মানুষ বেহেশতে আছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছাত্রলীগের মারামারিতে বন্ধ হওয়া চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ খুলল

রিপোর্টারের নাম : / ১৭০ জন দেখেছেন
আপডেট : নভেম্বর ২৭, ২০২১
বৃত্তান্ত২৪ অনলাইনের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন

ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারির জেরে বন্ধ হওয়ার ২৬ দিন পর আজ শনিবার খুলল চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক)। প্রথম দিন শান্তিপূর্ণভাবে ক্লাস চলেছে। ছাত্রাবাস বন্ধ থাকলেও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়। তবে মারামারির ঘটনায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক এখনো পুরোপুরি কাটেনি।

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন চৌধুরীর অনুসারী হিসেবে পরিচিত ছাত্রলীগের দুই পক্ষের নেতা–কর্মীদের মধ্যে গত ২৯ অক্টোবর রাতে চমেকের প্রধান ছাত্রাবাসে মারামারি হয়।

এ ঘটনায় ৩১ অক্টোবর অনির্দিষ্টকালের জন্য কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এর মধ্যে গত মঙ্গলবার একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠকে মারামারির ঘটনায় দুই পক্ষের ৩১ জন ছাত্রকে বহিষ্কার করা হয়। এরপর কলেজ খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

তবে এ বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে ছাত্রলীগের এক পক্ষ গত বুধবার থেকে সক্রিয় রয়েছে। দুটি পক্ষেরই বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের আবেদন জানানোর কথা। তবে প্রথম দিন কেউ আবেদন করেনি।

বিজ্ঞাপন
কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক সাহেনা আক্তার প্রথম আলোকে বলেন, ‘শান্তিপূর্ণভাবে প্রথম দিন কেটেছে। শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিও খুব ভালো ছিল। সব ক্লাস চলেছে।’

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীর অনুসারী ছাত্রলীগের পক্ষটির কলেজ খোলার প্রথম দিনই বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারে আবেদন করার কথা ছিল।

এ পক্ষের নেতা ও ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের (ইচিপ) সভাপতি কে এম তানভীর বলেন, ‘আমরা আবেদন প্রস্তুত করছি। দু–এক দিনের মধ্যে জমা দেব।’ তাঁদের পক্ষের ২৩ জনকে পক্ষপাতমূলকভাবে একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় বহিষ্কার করা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

অন্যদিকে সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন চৌধুরীর অনুসারী ছাত্রলীগের অন্য পক্ষটিও তাঁদের আটজনের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি তুলেছে।

চমেক ছাত্রলীগের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আল আমীন বলেন, ‘আমরা অধ্যক্ষ্যের সঙ্গে দেখা করে ছাত্রদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানাব। পাশাপাশি আসল দোষীদের শাস্তি দেওয়ার ব্যাপারে আবেদন জানাব।’

গত মঙ্গলবার একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠকে ক্যাম্পাসের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের ভার পুলিশের কাছে ন্যস্ত করা হয়।

প্রসঙ্গত, ২৯ অক্টোবর রাতে মারামারির পরদিন ক্যাম্পাসের সামনে রাস্তায় মাহাদি জে আকিবের ওপর এক পক্ষ হামলা করে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। ২১ দিন চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরেছেন তিনি। এ ঘটনায় পাল্টাপাল্টি তিনটি মামলা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ