শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৮:০৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কোটাবিরোধীদের আন্দোলন থামানো উচিত : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘কোটাবিরোধীদের অনেক বক্তব্য সংবিধানের মূলনীতির বিরোধী’ দেশে এখন দুর্নীতি ফাঁসের মৌসুম চলছে : রিজভী কোটা সংস্কার আন্দোলন অন্যদিকে ধাবিত করার চেষ্টা চলছে : ডিবিপ্রধান কোটাবিরোধীদের ভাঙচুর-হামলার জেরে পুলিশের মামলা দায়ের ‘ব্যাংকিং খাত এখন দুরবস্থার মধ্যে রয়েছে’ ডিসেম্বরেও উৎপাদনে যাচ্ছে না পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে দিল্লি, মুম্বাইসহ বেশ কিছু রাজ্য গাজার মানবিক অঞ্চলে বিমান হামলা, নিহত ৭১ গাজার ৭০ হাজারের বেশি মানুষ হেপাটাইটিসে আক্রান্ত নেপালে ১৬ বছরে ১৪ বার সরকার বদল? যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপ আয়োজন করে কোটি টাকা খুইয়েছে আইসিসি ‘পদক নয়, নিজেদের উন্নতি করতে অলিম্পিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার : শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

জাতিসংঘের তত্ত্বাবধায়নে গুম-হত্যার স্বাধীন তদন্ত চাই : মির্জা ফখরুল

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : আগস্ট ১৮, ২০২২
জাতিসংঘের তত্ত্বাবধায়নে গুম-হত্যার স্বাধীন তদন্ত চাই : মির্জা ফখরুল

জাতিসংঘের তত্ত্বাবধায়নেই বাংলাদেশে সংঘটিত গুম-বিচারবর্হিভূত ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত চেয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, প্রায় ৬০০-এর বেশি বাংলাদেশের রাজনৈতিক নেতাকর্মী বা বিভিন্ন সিভিল সোসাইটির মানুষ, শ্রমিকনেতা গুম হয়েছে। এদের বেশির ভাগেরই খোঁজ মেলেনি।

আজ শুক্রবার বিকেলে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনারের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই দাবি জানান।

ফখরুল বলেন, ‘একটা লোককে রাষ্ট্র গুম করে রাখবে। তাঁর সমস্ত অধিকারকে ক্ষুণ্ন করা হবে, তাঁর পরিবারের মানবাধিকার থেকে বঞ্চিত করা হবে—এটা কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। এই ধরনের অপরাধ অবশ্যই খুঁজে বের করা দরকার।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘জাতিসংঘের মানবাধিকার হাইকমিশনার অত্যন্ত সঙ্গতভাবে বলেছেন যে, এগুলোর সুষ্ঠু স্বাধীন নিরপেক্ষ তদন্ত হতে হবে এবং সেই সঙ্গে এগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে, তাদের বিচার হতে হবে। তিনি র‌্যাবের নামও উচ্চারণ করেছেন। বলেছেন, র‌্যাবের মাধ্যমে এগুলো হয়েছে বলে তাদের ইনভেস্টিগেশনে যতটুকু এসেছে। এ বিষয়ে আমরা বলেছি যে, জাতিসংঘের তত্ত্বাবধায়নে স্বাধীন ইনভেস্টিগেশন চাই, ইনভেস্টিগেশনের মাধ্যমে সেগুলো উদঘাটন করতে চাই। যারা এসবের সঙ্গে জড়িত, যেসব সংগঠন জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি আমরা জানিয়েছি।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনার যে বিবৃতি দিয়েছেন এই বিবৃতি আমাদের এতদিনের যে দাবি, সেটাই প্রমাণিত হয়েছে।’

ফখরুল বলেন, ‘গতকালের সমাবেশে উনারা (আওয়ামী লীগনেতা) হুংকার দিয়েছেন। বলা যেতে পারে, বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়েছেন। এটাই তাঁদের চরিত্র। এভাবে তাঁরা সব সময় বিরোধী দলকে দমন করতে চান এবং যে ধরনের ভাষা তাঁরা ব্যবহার করেছেন, সেই ভাষা সম্পূর্ণ সন্ত্রাসের ভাষা। সেই ভাষা পুরোপুরিভাবে বিরোধী দলকে ভয় দেখানো, সন্ত্রাস সৃষ্টি করার ভাষা। তারা পরিষ্কার করে এমনও কথা বলেছেন—বেরুতে দেওয়া হবে না, গলিতে ঢুকতে দেওয়া হবে না।’

এসময় জন্মাষ্টমী উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায়কে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান বিএনপি মহাসচিব। একইসঙ্গে চা শ্রমিকদের দাবির প্রতি সমর্থন জানান।

‘খালেদা জিয়া সুস্থ আছেন’ জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘ম্যাডামের অবস্থা ভালো। আমি তাঁর ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলেছি, সেই ডাক্তার বলেছেন, উনি অত্যন্ত ভালো আছেন। এখন পর্যন্ত কোনো সমস্যা নেই। উনি হাসপাতাল থেকে যেমনি এসছিলেন, সেরকমই আছেন।’


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ