শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৮:৪০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রোববার যে সময়ে আঘাত হানবে ঘূর্ণিঝড় ‘রিমাল’ গ্রুপ ‘সি’: চমকে দিতে চায় উগান্ডা-পাপুয়া নিউগিনি এফএ কাপের ফাইনালে ম্যানচেস্টার ডার্বি উপকূলীয় এলাকায় লঞ্চ চলাচল বন্ধের নির্দেশ আনারের মাংসের ‘কিমা’ বানিয়ে কমোডে ফ্ল্যাশ করে খুনীরা আনারের মরদেহের পাশে বসেই খাবার খান হত্যাকারীরা বিশ্বজুড়ে গড় আয়ু কমেছে প্রায় ২ বছর : ডব্লিউএইচও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী আসছে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত টাকা পাচারের অভিযোগ দেরিতে আসায় ব্যবস্থা নিতে বেগ পেতে হচ্ছে: দুদক পাকিস্তানে মূল্যস্ফীতি বাড়ায় হিমশিম খাচ্ছে চাকরিজীবীরাও রাফা-গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত ৬০ এমপি আনারকে আগেও দুবার খুনের পরিকল্পনা হয়: ডিবি দুর্নীতি প্রশ্রয়দাতাদেরও বিচার করতে হবে : ১২ দলীয় জোট ‘বিদ্যুৎ-পানি ব্যবহারে সাশ্রয়ী হোন’

জেএসসি পরীক্ষা আর হচ্ছে না: শিক্ষামন্ত্রী

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ৫, ২০২২
জেএসসি পরীক্ষা আর হচ্ছে না: শিক্ষামন্ত্রী

চলতি বছর অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা হবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

রোববার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “আগামী বছর থেকে যেহেতু আমরা রোল-আউটে যাচ্ছি, যদিও ক্লাস এইট যাবে না, তার পরের বছর যাবে, আমার মনে হয়- এই বছর জেএসসি পরীক্ষার সুযোগ নেই, পরীক্ষা হবে না।”

তিনি আরও জানান, নতুন কারিকুলামে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা থাকছে না। ২০২৩ সালে এ পরীক্ষা নেয়ার প্রয়োজন দেখছি না। তাই বলা যায়, আর ৮ম শ্রেণির পাবলিক পরীক্ষা নেয়া হবে না। তবে সরকার নতুন করে কোনো পরিবর্তন আনলে সেটি আগে থেকে বলা যায় না।

এ সময় আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির ঘোষণা দেন ডা. দীপু মনি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এমপিওভুক্তির ঘোষণাটি আসার কথা ছিল গত মার্চে। এরপর বলা হয় মে মাসে আসবে। অবশেষে জুন মাসের শুরুতে এসে আবার এমপিওভুক্তির সময়সীমা ঘোষণা দিলেন শিক্ষামন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আবু বকর ছিদ্দীক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ, এনটিআরসিএর চেয়ারম্যান এনামুল কাদের খান প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে অষ্টম শ্রেণিতে চালু হয় জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট, জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট ও সমমানের পরীক্ষা। করোনাভাইরাসের কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালে হয়নি এ পরীক্ষা। আর নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী আগামী বছর থেকেও থাকছে না এ পরীক্ষা। প্রতি বছরই নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হয়েছে এ পরীক্ষা। সবশেষ ২০১৯ সালে প্রায় ২৭ লাখ পরীক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ