রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঈদের পর রেমিট্যান্সে ফিরে এসেছে গতি সার্বভৌমত্ব রক্ষায় বাংলাদেশ সর্বদা প্রস্তুত: প্রধানমন্ত্রী দুর্দান্ত মেসিতে জয় পেল মায়ামি দুঃসংবাদ পেল ধোনি-মুস্তাফিজদের চেন্নাই বিএনপির নেতিবাচক কর্মকাণ্ডে জনগণের আগ্রহ নেই : ওবায়দুল কাদের বিএনপিনেতা হাবিবুর রহমান হাবিব জামিনে মুক্ত গরমে হাসপাতালগুলোকে যে নির্দেশ দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী বোরো মৌসুমে ধান-চাল সংগ্রহের মূল্য নির্ধারণ মিয়ানমার নৌবাহিনীর গুলিতে বাংলাদেশি ২ জেলে গুলিবিদ্ধ ‘কাতার আমিরের সফরে ছয়টি চুক্তি ও পাঁচটি সমঝোতা স্মারক সই হবে’ পেনশন স্কিম, প্রত্যাশার চেয়েও গ্রাহক কম ইসরায়েলে নেতানিয়াহু সরকারের বিরুদ্ধে হাজারো মানুষের বিক্ষোভ ইসরায়েল–ইউক্রেনকে সহায়তায় যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টে বিল পাস ইসরায়েলি সেনাদের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি হামলা, ১৪ ফিলিস্তিনি নিহত

ডলারের বিপরীতে টাকার মান আরও কমল

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : মে ২৩, ২০২২

ফের যুক্তরাষ্ট্রের ডলারের বিপরীতে টাকার মান কমালো বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রতি ডলারের বিনিময় মূল্য ৪০ পয়সা বাড়ানো হয়েছে। ফলে এক মার্কিন মুদ্রা পেতে এখন ৮৭ টাকা ৯০ পয়সা টাকা গুণতে হবে।

আজ সোমবার (২৩ মে) কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, এ নিয়ে চলতি মাসে তিনবার ডলারের বিপরীতে টাকার মান কমল।

গতকাল রোববার পর্যন্ত প্রতি ডলার বিনিময় হয় ৮৭ টাকা ৫০ পয়সায়। গত ১৬ মে এ হার নির্ধারণ করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর আগে ৯ মে ডলারের বিনিময় মূল্য ২৫ পয়সা বাড়ানো হয়। এতে প্রতি ডলারের বিনিময় হার দাঁড়ায় ৮৭ টাকা ২৫ পয়সা।

দেশের বর্তমান মুদ্রাবাজারে ডলারের ব্যাপক সংকট দেখা দিয়েছে। ফলে বিলাসবহুল পণ্য আমদানি নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। একই সঙ্গে রপ্তানি আয় ও রেমিট্যান্সে মুদ্রা বিনিময় হারের সুবিধা দিতে ডলারের দাম বাড়ানো হয়েছে।

করোনা ধাক্কা কাটিয়ে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বাড়ায় আমদানি বেড়েছে। পাশাপাশি নিত্যপণ্যের দামও বেড়েছে। সব মিলিয়ে আমদানি ব্যয় বেড়েছে।

তাই এখন বাজারে ডলারের চাহিদা বেশি। সেই সঙ্গে আমদানির তুলনায় রপ্তানি না বাড়ায় এবং রেমিট্যান্স কমায় এর জোগান কমেছে। ফলে মার্কিন মুদ্রার দাম বাড়ছে।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ