মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বায়োপসির জন্য খালেদা জিয়ার নমুনা সংগ্রহ, ফল পেতে লাগবে দু’সপ্তাহ বিভিন্ন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের ২১৪ কোটি টাকা ফেরত দিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পদক্ষেপ ফৌজদারি কার্যবিধি সময়োপযোগী করতে আইন মন্ত্রণালয়ের কমিটি গঠণ পীরগঞ্জে হিন্দুপাড়ায় হামলা : আরো দু’জনকে গ্রেপ্তারের দাবি পুলিশের খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো না, কোকোর স্ত্রী এসেছেন ডিসেম্বরে ড্যাপ গেজেট, যৌক্তিক কারণে হতে পারে সংশোধন: তাজুল পুলিশ কনস্টবলের ৩০০০ পদে আবেদন ৩.৩৮ লাখ, প্রথম বাছাইয়ে বাদ ২.২১ লাখ লিটন দাসের জোড়া ক্যাচ মিসে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচটাও হাতছাড়া টাইগারদের ধারাবাহিকভাবে রেমিট্যান্স কমার প্রভাবে ডলারের দাম বৃদ্ধি অব্যাহত রোহিঙ্গা শিবিরে সহিংসতার নেপথ্যে ৪ কারণ ধর্মীয় সম্প্রীতি রক্ষায় প্রতি ওয়ার্ডে কমিটি গঠণের নির্দেশ স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক যেকোনও অংশীদারের চেয়ে গভীরতর: শ্রিংলা বিএফইউজে সভাপতি ওমর ফারুক, মহাসচিব দীপ আজাদ যুক্তরাষ্ট্রসহ ১০ দেশের রাষ্ট্রদূতকে ‘বহিষ্কার’ তুরস্কের পীরগঞ্জে হামলা ব্যক্তিগত বিরোধের জেরে: র‍্যাব স্বপ্নের পায়রা সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ভোজ্যতেল-মুরগির দাম আরও বেড়েছে, অস্বস্তিতে বিক্রেতারাও ভোর রাতে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাদ্রাসায় হামলা, নিহত ৬ কারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করছে খুঁজে দেখতে হবে: জি এম কাদের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মাদক ও অস্ত্রের ব্যবসা বন্ধে প্রয়োজনে গুলি ছুড়তে হবে

ডিসেম্বরই চূড়ান্ত হচ্ছে ড্যাপ: তাজুল ইসলাম

রিপোর্টারের নাম : / ৩৩ জন দেখেছেন
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫০ অপরাহ্ন

বৃত্তান্ত প্রতিবেদক: আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই রাজধানী ঢাকাকে ঘিরে তৈরি করা ডিটেইল্ড এরিয়া প্ল্যান (ড্যাপ) চূড়ান্ত করার কথা জানিয়েছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

তিনি বলেন, আমরা এরইমধ্যে ড্যাপের অংশীজনদের মতামত নিয়েছি এখন পর্যালোচনা চলছে, আশা করছি ডিসেম্বরের মধ্যেই চূড়ান্ত করা যাবে।

সোমবার সকালে সচিবালয়ের গণমাধ্যম কেন্দ্রে সচিবালয় বিটে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম-বিএসআরএফ আয়োজিত বিএসআরএফ সংলাপে তার বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ঢাকার ড্যাপের গেজেট চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই প্রকাশ করা হবে। স্থানীয় পরিষদের অধীনে প্রতিটি রাস্তা-ঘাট নির্মাণ কাজের জন্য আলাদা আইডি নাম্বার দেওয়া হবে। এতে কাজের সুষ্ঠু তদারকিসহ সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ও প্রকৌশলীকে সহজে শনাক্ত করা যাবে। কেউ গাফিলতি করলে সহজে ধরা যাবে। প্রতিটি নির্মাণ কাজের আয়ুষ্কাল নির্ধারণ করা হবে। সময়ের আগে সেটি ক্ষতিগ্রস্ত হলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ও প্রকৌশলীকে দায়িত্ব নিতে হবে।

স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলো সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন  করে না – এমন অভিযোগের কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, এমন অভিযোগের অনেকটাই সঠিক। কিন্তু এর জন্য আমরাও দায়ী। জনপ্রতিনিধিদের সঠিকভাবে কাজ করানোর দায়িত্ব আমার’।

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে সিটি করপোরেশন, পৌরসভাসহ স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোর আয় কমেছে। তবে তার মধ্যেও বর্তমানে ৮০ শতাংশ পৌরসভার বেতন-ভাতা পরিশোধ করা আছে। পৌরসভাগুলোতে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিয়োগ দেওয়া হবে। বিষয়টিতে প্রধানমন্ত্রী রাজি হয়েছেন। এতে সেবা উন্নত হবে। জবাবদিহিতা বাড়বে, আয় বাড়বে এবং সরকারের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ স্থাপিত হবে।

তাছাড়া, জেলা পরিষদগুলোতে অডিটর নিয়োগ দেওয়া হবে। এতে প্রতিষ্ঠান স্বনির্ভর হবে, তার দাবি।

তিনি বলেন, জমির সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিতে আগামীতে বাড়ি-ঘর নির্মাণ করতে হলে, এমনকি গ্রামেও, অনুমতির বিধান করা হচ্ছে। জেলা পরিষদ এবং পৌরসভার আইন পরিবর্তনের কাজ চলছে। জেলা পরিষদের সদস্য কমিয়ে আনার জন্য প্রত্যেক উপজেলা থেকে একজন এবং তিন উপজেলা থেকে একজন মহিলা সদস্য নিয়োগের বিধান রেখে আইন প্রস্তাব করা হয়েছে।

ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি নিয়ে তাজুল ইসলাম বলেন, “ডেঙ্গু মোকাবিলায় কাজ করা হচ্ছে।আগামী একমাসের মধ্যে অক্টোবরেই হয়তো ডেঙ্গুর প্রকোপ কমে আসবে। দীর্ঘ সময় মানুষজন ছুটিতে বাড়িতে থাকায় বাসা-বাড়ি এবং নির্মাণাধীন ভবনে পানি জমে এডিস মশার জন্ম হয়েছে। তাই গত দুই বছরের তুলনায় এবার ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেশি। এবার ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ার অন্যতম কারণ জলবায়ু পরিবর্তন।”

মন্ত্রী বলেন, ‘২০১৯ সাল থেকে মশা নিধনের একটি পরিকল্পিত উদ্যোগ নিই। ওই বছরের অভিজ্ঞতা নিয়ে ২০২০ সালে কাজ করি, সেজন্য আক্রান্ত হয় মাত্র এক হাজার ৪০৫ জন। কিন্তু, চলতি বছর বেশি আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যুর সংখ্যাও বেশি।’

এলজিআরডি মন্ত্রী আরও বলেন, ‘তার ওপর দীর্ঘ সময় ধরে চলা বিধিনিষেধ আবার ঈদের ছুটিতে মানুষ গ্রামের বাড়ি চলে যায়। যে কারণে পরিত্যক্ত স্থানে পানি জমে মশার জন্ম হয়েছে। অন্যদিকে, নির্মাণাধীন ভবনগুলোতে শ্রমিকেরা ছুটিতে থাকায় সেখানেও মশার লার্ভা পাওয়া গেছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইনে প্রচুর মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে। তাদের থেকে বাংলাদেশের ডেঙ্গু পরিস্থিতি অনেক ভালো অবস্থানে রয়েছে। কিন্তু দুঃখজনক যে, এবার ডেঙ্গুতে অনেক শিশু মারা গেছে। অনেকে স্বজন হারিয়েছেন। আমরা আর একজনকেও হারাতে চাই না। এবার যে অভিজ্ঞতা হয়েছে, এটা পরের সময়গুলোতে কাজে লাগিয়ে পদক্ষেপ নেব।’

বিএসআরএফ সভাপতি তপন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হক।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ