সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৫:০৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
গণহত্যার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বে ঐক্যের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর মেয়েরা রাজাকার বলে স্লোগান দেয়, কোন দেশে বাস করছি: প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ভেসে যাবে সরকার: রিজভী ১২ দলীয় জোটে যোগ দিলো বিকল্পধারাসহ নতুন ২ দল ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত সিরাজগঞ্জের তাঁত শিল্প আইনশৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে শক্ত হাতে মোকাবিলা হবে: ডিএমপি এবার প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলন কোটা আন্দোলন : এবার রাজপথে মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যক্তিগত সহকারী ও তার স্ত্রীর হিসাব স্থগিত বছরে প্রায় ৩০ কোটি টাকার কৃত্রিম ফুল আমদানি জলাবদ্ধতা রাজধানী নিয়ে উদ্বিগ্ন নগরবাসী নানা পরিস্থিতি বিবেচনায় রপ্তানি আয়ে ধীরগতি সম্মেলনে যোগ দিতে মিলওয়াকিতে পৌঁছেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প গাজায় ইসরায়েলি হামলা, নিহত ১৪১ ফিলিস্তিনি

দুই ধাপ উন্নতি তাইজুলের

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : এপ্রিল ১৩, ২০২২

পোর্ট এলিজাবেথে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্টে ৯ উইকেট নিয়ে আইসিসি টেস্ট বোলিং র‌্যাংকিং তালিকায় দুই ধাপ উন্নতি হয়েছে বাংলাদেশের বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের। ৬৩৬ রেটিং নিয়ে ২২তম স্থানে উঠেছেন তাইজুল।

গত সপ্তাহের পারফরমেন্সের উপর ভিত্তি করে পুরুষ র‌্যাংকিংয়ের সাপ্তাহিক হালনাগাদ প্রকাশ করে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

ডারবানে প্রথম টেস্টে না হলেও, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট খেলার সুযোগ পান বাংলাদেশের তাইজুল।

পোর্ট এলিজাবেথে খেলতে নেমেই বল হাতে দুই ইনিংস মিলিয়ে ৬৫ ওভারে ২০২ রানের বিনিময়ে ৯ উইকেট নেন তাইজুল। প্রথম ইনিংসে ১৩৫ রানে ৬ উইকেট ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৭ রানে ৩ উইকেট নেন তিনি।
বাংলাদেশী বোলারদের মধ্যে র‌্যাংকিংয়ে সবার উপরে আছেন তাইজুল। এরপরই আছেন সাকিব আল হাসান। ৫৬২ রেটিং নিয়ে ৩০তম স্থানে আছেন তিনি।

দ্বিতীয় টেস্টে বল হাতে দুই ইনিংসে ৪ উইকেট নেন বাংলাদেশের পেসার খালেদ আহমেদ। তাই উন্নতি হয়েছে তারও। ২২ ধাপ এগিয়ে ৯৯তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন খালেদ। জিম্বাবুয়ের রায়ান বার্লের সাথে সমান ১৩২ রেটিং তার।

অবনতি হয়েছে স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজের। পোর্ট এলিজাবেথে দুই ইনিংসে ৩ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। তারপরও দুই ধাপ পিছিয়ে ৫৫২ রেটিং নিয়ে এখন ৩৪ নম্বরে মিরাজ। ৬ ধাপ নিচে নেমে ২২৪ রেটিং নিয়ে ৮৫তম স্থানে আরেক পেসার এবাদত হোসেন। সিরিজের শেষ টেস্টে ১২১ ও ২৯ রান দিয়ে উইকেটশুন্য ছিলেন এবাদত।

প্রথম টেস্টের মত দ্বিতীয় টেস্টেও বাংলাদেশকে ধসিয়ে দিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার স্পিনার কেশব মহারাজ। প্রথম ইনিংসে ২ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেট নেন তিনি। ফলে সাত ধাপ এগিয়ে ৬৬০ রেটিং নিয়ে ২১তম স্থানে মহারাজ। সিরিজে তার শিকারে সর্বোচ্চ ১৬ উইকেট।

মহারাজের সাথে বাংলাদেশকে ধসিয়ে দিতে ভূমিকা ছিলো দক্ষিণ আফ্রিকার আরেক স্পিনার সিমোন হার্মারের। দ্বিতীয় টেস্টে ৬ উইকেট নেন তিনি। আর সিরিজে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৩ উইকেট নিয়েছেন হার্মার। তাই র‌্যাংকিংয়ে বড় লাফ দিয়েছেন হার্মার। ২৫ ধাপ এগিয়ে ৫৫তম স্থানে তিনি।

টেস্ট বোলারদের তালিকায় শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। পরের চার স্থানে যথাক্রমে আছেন- ভারতের রবিচন্দ্রন অশ্বিন, জাসপ্রিত বুমরাহ, পাকিস্তানের শাহিন শাহ আফ্রিদি ও নিউজিল্যান্ডের কাইল জেমিসন।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ