বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৫২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ডের উভয়েরই লক্ষ্য সিরিজে এগিয়ে যাওয়া মিয়ানমার থেকে ফিরলেন ১৭৩ বাংলাদেশি আপিল বিভাগে ৩ বিচারপতি নিয়োগ মন্ত্রী-এমপির স্বজনরা প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করলে ব্যবস্থা: কাদের ফিলিপাইনে তাপমাত্রা ৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস উত্তর কোরীয় প্রতিনিধি দলের ইরান সফর খালেদা জিয়ার গ্যাটকো মামলায় চার্জশুনানি ২৫ জুন অফশোর ব্যাংকিংয়ে সুদের ওপর কর প্রত্যাহার রানা প্লাজায় নিহতদের স্মরণ দেশের হজ ব্যবস্থাপনা বিশ্বের মধ্যে স্মার্ট হবে: ধর্মমন্ত্রী থাইল্যান্ডে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী তাপদাহের মধ্যে গ্রামে ১০৪৯ মেগাওয়াট লোডশেডিং ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিলো জ্যামাইকা সুইজারল্যান্ডে জব্দ রয়েছে রাশিয়ার ১ হাজার ৪শ’ কোটি ডলার জিবুতি উপকূলে অভিবাসীবাহী নৌকাডুবিতে নিহত ৩৩

দেশে মৃত্যুশূন্য দিনে করোনা শনাক্ত ৩৫

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : মে ১৯, ২০২২
করোনায় দেশে একদিনে মৃত্যু ২, শনাক্ত ১৫৬

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৩৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, যাদের ৩১ জনই ঢাকা জেলার বাসিন্দা।

গত একদিনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কারও মৃত্যুর খবর আসেনি। এ নিয়ে টানা ২৯ দিন কোভিডে দেশে কারও মৃত্যু হয়নি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এক দিনে ৫ হাজার ৮৬৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৫ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আগের দিন ২২ জন রোগী শনাক্তের তথ্য দিয়েছিল অধিদপ্তর।

নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৬০ শতাংশ। একদিন আগে যা ছিল শূন্য দশমিক ৪৪ শতাংশ।

নতুন রোগীদের নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯ লাখ ৫৩ হাজার ১৩৮ জন। মৃত্যুর মোট সংখ্যা আগের মতই ২৯ হাজার ১২৭ জন রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২১৬ জন কোভিড রোগী। তাদের নিয়ে ১৯ লাখ ৩৫৪ জন সেরে উঠলেন।

এই হিসাবে দেশে এখন সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২৩ হাজার ৬৫৭ জন। অর্থাৎ তারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর এখনও সুস্থ হননি।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে প্রথম করোনার সংক্রমণ দেখা দেয়। কয়েক মাসের মধ্যে এ ভাইরাস বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। বাংলাদেশে প্রথম করোনা সংক্রমিত ব্যক্তি শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ই মার্চ।

তবে, প্রথম মৃত্যু হয় একই বছরের ১৮ই মার্চ। গত বছরের ৫ ও ১০ই আগস্ট দুদিন সর্বাধিক ২৬৪ জন করে মারা যান।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ