শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:৫১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ডিসেম্বরেও উৎপাদনে যাচ্ছে না পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে দিল্লি, মুম্বাইসহ বেশ কিছু রাজ্য গাজার মানবিক অঞ্চলে বিমান হামলা, নিহত ৭১ গাজার ৭০ হাজারের বেশি মানুষ হেপাটাইটিসে আক্রান্ত নেপালে ১৬ বছরে ১৪ বার সরকার বদল? যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপ আয়োজন করে কোটি টাকা খুইয়েছে আইসিসি ‘পদক নয়, নিজেদের উন্নতি করতে অলিম্পিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার : শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা কোটা আন্দোলনে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি ভর করেছে: ওবায়দুল কাদের দেশে বদলে যাচ্ছে বন্যার ধরন গণতন্ত্রের জন্যও শিক্ষার্থীদের লড়াই করার আহ্বান আমির খসরুর সরকার পতনের আন্দোলনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে: মান্না কোটা সংস্কারের নামে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত স্বাধীনতাবিরোধীরা: আইনমন্ত্রী বাজারে সব পণ্যেই হাকিয়েছে সেঞ্চুরি

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য সার্বভৌমত্বের ওপর আঘাত : জিএম কাদের

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : আগস্ট ২০, ২০২২
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য সার্বভৌমত্বের ওপর আঘাত : জিএম কাদের

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেছেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর একে আব্দুল মোমেনের বক্তব্য দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের ওপর আঘাত। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনাকে টিকিয়ে রাখতে ভারতকে অনুরোধ করার বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বক্তব্য প্রতিবেশী বন্ধুরাষ্ট্রকে অস্বস্তিতে ফেলেছে বলেও মনে করেন তিনি।

জিএম কাদের আরো বলেন, সরকারের উচিত বিষয়টি খতিয়ে দেখে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা। শনিবার দুপুরে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে জন্মাষ্টমী উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায়ের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। জিএম কাদের আরো বলেন, দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সংকট আরো ঘনিভূত হবে বলেও মনে করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান। বিচারবহির্ভূত হত্যা ও গুমের অভিযোগ উড়িয়ে দেয়ার মধ্য দিয়ে সারা পৃথিবীর মানুষ বাংলাদেশীদের মিথ্যেবাদি হিসেবে চিনছে বলেও মনে করেন গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) সন্ধ্যায় বন্দর নগরী চট্টগ্রামের জেএম সেন হলে জন্মাষ্টমী উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমি ভারতে গিয়ে বলেছি, শেখ হাসিনাকে টিকিয়ে রাখতে হবে। শেখ হাসিনা আমাদের আদর্শ। তাকে টিকিয়ে রাখতে পারলে আমাদের দেশ উন্নয়নের দিকে যাবে এবং সত্যিকারের সাম্প্রদায়িকতামুক্ত, অসাম্প্রদায়িক একটা দেশ হবে। শেখ হাসিনার সরকার টিকিয়ে রাখার জন্য যা যা করা দরকার, আমি ভারতবর্ষের সরকারকে সেটা করতে অনুরোধ করেছি।’

সম্প্রতি নিজের ভারত সফরের প্রসঙ্গ টেনে মোমেন বলেন, ‘আমি বলেছি, আমার দেশে কিছু দুষ্ট লোক আছে, কিছু উগ্রবাদী আছে। আমাদের দেশ সারা পৃথিবী থেকে বিচ্ছিন্ন না। আপনার দেশেও যেমন দুষ্টু লোক আছে, আমাদের দেশেও আছে। কিছুদিন আগে তাদের দেশেও এক ভদ্রমহিলা কিছু কথা বলেছিলেন, আমরা সরকারের পক্ষ থেকে একটি কথাও বলিনি। বিভিন্ন দেশ কথা বলেছে, আমরা বলিনি। এই ধরনের প্রটেকশন আমরা আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ