শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৩৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
৩৬ বছর পর বিশ্বকাপের নকআউটে মরক্কো ২৪ বছর পর গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় বেলজিয়ামের গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে সরকার বেসামাল হয়ে গেছে : রিজভী বিদ্যুৎ-জ্বালানির দাম নির্ধারণ করতে পারবে সরকার আমাদের ও আওয়ামী লীগের মাঝখানে আসবেন না: সালাম ইসলামি ব্যাংক থেকে মালিকপক্ষের ৩০ হাজার কোটি টাকা ঋণ পোশাক রপ্তানিতে আবারো দ্বিতীয় স্থানে বাংলাদেশ ডেঙ্গুতে মৃত্যুহীন দিনে ৩৮০ জন হাসপাতালে ভর্তি আশার আলো দেখাচ্ছে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স দেশের কথা না ভেবে সরকার বিদেশে অর্থ পাচার করছে: ড. কামাল ডিসেম্বরকে বীর মুক্তিযোদ্ধা মাস ঘোষণার দাবি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পুলিশ প্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে যা জানালেন বিএনপি নেতারা ডিএমপির ছয় কর্মকর্তা বদলি শুরু হলো সারাদেশে পুলিশের বিশেষ অভিযান করোনা টিকাদানের বিশেষ কর্মসূচি শুরু

বাবর-কামিন্স-ব্র্যাথওয়েটের মধ্যে কে হবেন সেরা?

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : এপ্রিল ৬, ২০২২
বাবর-কামিন্স-ব্র্যাথওয়েটের মধ্যে কে হবেন সেরা?

মার্চের প্লেয়ার অব দ্য মান্থে মনোনয়ন তালিকা প্রকাশ করেছে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

গেল মাসের দুর্দান্ত পারফরমেন্সের কারনে সেরা হবার দৌঁড়ে মনোনয়ন পেয়েছেন টেস্ট ক্রিকেটের তিন অধিনায়ক পাকিস্তানের বাবর আজম, অস্ট্রেলিয়ার প্যাট কামিন্স ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট।

গেল মাসে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলে পাকিস্তান। সিরিজে ৫ ইনিংস ব্যাট করে ৭৮ গড়ে ৩৯০ রান করেন বাবর। করাচি টেস্টে ১৯৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন বাবর। তার এই ইনিংসের সুবাদে হারের মুখ থেকে রক্ষা পেয়েছিলো পাকিস্তান।

এছাড়া অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দু’টি ওয়ানডেও খেলেছেন বাবর। দুই ইনিংসে ৫৭ ও ১১৪ রান করেছেন তিনি। এই নিয়ে দ্বিতীয়বার আইসিসি মাস সেরা দৌঁড়ে মনোনয়ন পেলেন বাবর। ২০২১ সালের এপ্রিলে মনোনয়ন পেয়ে জিতেছিলেন তিনি।

পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে যৌথভাবে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার কামিন্স। ৬ ইনিংসে ২৭০ রানে ১২ উইকেট নেন তিনি। ১২ উইকেট ছিলো অসি স্পিনার নাথান লায়নেরও। তবে মার্চে সেরা হবার দৌঁড়ে মনোনয়ন পেলেন কামিন্সই। সিরিজটি ১-০ ব্যবধানে জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া।

করাচিতে অস্ট্রেলিয়ার জয়ে প্রধান ভূমিকা রাখেন কামিন্স। প্রথম ইনিংসে ৫৬ রানে ৫ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ২৩ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছিলেন তিনি।

মার্চে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলেছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সিরিজে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন ব্র্যাথওয়েট। ৬ ইনিংসে ১টি সেঞ্চুরি ও ২টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ৩৪১ রান করেছিলেন ব্র্যাথওয়েট। তার ব্যাটিং ও অধিনায়কত্বে গুনে সিরিজটি ১-০ ব্যবধানে জিতে ক্যারিবীয়রা। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ১৬০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন ব্র্যার্থওয়েট।

নারী ক্রিকেটে সেরা পারফরমেন্সের কারনে মনোনায়ন পান ইংল্যান্ডের বোলার সোফি একলেস্টোন, অস্ট্রেলিয়ার রাচেল হেইনস ও দক্ষিণ আফ্রিকার লরা ওলভার্ড।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ