রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১১:০২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আ.লীগ জনগণের কাঁধে চেপে বসেছে: জিএম কাদের হামাসের অভিযানে আরও ১৫ ইসরাইলি সেনা নিহত বাংলাদেশ ব্যাংকে কি তাহলে ঋণখেলাপিরা ঢুকবে, প্রশ্ন রিজভীর বিএনপি নেতা ইশরাক কারাগারে উপজেলা নির্বাচনে ব্যবসায়ী প্রার্থীদের দাপট অক্ষুণ্ণ: টিআইবি বাজারে থাকা এসএমসি প্লাসের সব ড্রিংকস প্রত্যাহারের নির্দেশ ভ্যাট বসলে মেট্রোরেলের সুনাম নষ্ট হবে : কাদের জাতীয় এসএমই পুরস্কার-২০২৩ পেলেন ৭ উদ্যোক্তা তরুণদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী পঞ্চম বাংলাদেশি হিসেবে বাবর আলীর এভারেস্ট জয় ঝুঁকিতে ৪৫ হাজার কোটি রুপির ভারতীয় মসলার বাজার যুদ্ধের মধ্যেই ইসরায়েলের সরকারে ভাঙনের সুর জীবন বাঁচাতে রাফা ছেড়েছেন ৮ লাখ ফিলিস্তিনি : জাতিসংঘ শরণার্থী শিবিরে ইসরায়েলি হামলা, নিহত অন্তত ১৭ রাজা চার্লসের চেয়েও বেশি সম্পদ ঋষি সুনাকের

বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন মসজিদের সন্ধান মিলল ইসরায়েলে

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ২৩, ২০২২
বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন মসজিদের সন্ধান মিলল ইসরায়েলে

বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন একটি মসজিদের ধ্বংসাবশেষ আবিষ্কৃত হয়েছে ইসরায়েলে। রাহাতের নাকাব মরু শহরে বহু পুরোনো এই মসজিদটির অবস্থান।

মিডল ইস্ট মনিটরের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইসরায়েল অ্যান্টিকুইটিস অথোরিট (আইএএ) বলেছে- মসজিদটি এই অঞ্চলের খ্রিস্টধর্ম থেকে ইসলামে পরিবর্তনের ওপর গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিতে পারবে।

টাইমস অব ইসরায়েলের খবরে বলা হয়, মসজিদটি ১২ শ’ বছরের পুরনো। এখন কেবল সামান্য কিছু অংশ রয়েছে। রাহাতে নতুন একটি এলাকা নির্মাণের সময় এর সন্ধান পাওয়া যায়।

আইএএ জানায়, মসজিদটির অবশিষ্ট অংশ দেখে বোঝা যাচ্ছে, এটি মক্কার দিকে মুখ করা একটি বর্গাকার কক্ষ। এর দক্ষিণ দিকের দেয়ালে অর্ধ বৃত্তাকার কুলুঙ্গি রয়েছে। এতে বোঝা যাচ্ছে এটি মসজিদ হিসেবে ব্যবহৃত হতো।

মসজিদটির পাশে একটি বিলাসবহুল ভবনও আবিষ্কৃত হয়েছে। এতে থাকা মূল্যবান বাসন-কোসন ও কাচের সামগ্রীতে বোঝা যাচ্ছে, এখানকার অধিবাসীরা কত সম্পদশালী ছিলেন। এখানেও একটি মসজিদ ছিল। এটি সপ্তম থেকে অষ্টম শতকের হতে পারে।

আইএএ জানিয়েছে, তারা রাহাতের মসজিদটি সংরক্ষণ করবে। এটিকে ঐতিহাসিক স্থাপনা বা সক্রিয় মসজিদ হিসেবেও রক্ষা করা হতে পারে।

আইএএ জানায়, এই আবিষ্কারের ফলে নেগেভ এলাকায় ইসলাম ধর্ম প্রচারের সময়কার অবস্থা জানা যাবে। তাছাড়া এই এলাকার ওই সময়ের সংস্কৃতি বুঝতেও সহায়ক হবে।

উল্লেখ্য, ইসলামি শাসনের আগে ওই এলাকাটি কয়েক শ’ বছর ধরে খ্রিস্টান অঞ্চল হিসেবে পরিচিত ছিল। এটি ছিল বায়জেন্টাইন শাসনের অধীনে।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ