সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৫:২৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ছাত্রলীগের দখলে ঢাবি, অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী আহত গণহত্যার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বে ঐক্যের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর মেয়েরা রাজাকার বলে স্লোগান দেয়, কোন দেশে বাস করছি: প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ভেসে যাবে সরকার: রিজভী ১২ দলীয় জোটে যোগ দিলো বিকল্পধারাসহ নতুন ২ দল ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত সিরাজগঞ্জের তাঁত শিল্প আইনশৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে শক্ত হাতে মোকাবিলা হবে: ডিএমপি এবার প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলন কোটা আন্দোলন : এবার রাজপথে মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যক্তিগত সহকারী ও তার স্ত্রীর হিসাব স্থগিত বছরে প্রায় ৩০ কোটি টাকার কৃত্রিম ফুল আমদানি জলাবদ্ধতা রাজধানী নিয়ে উদ্বিগ্ন নগরবাসী নানা পরিস্থিতি বিবেচনায় রপ্তানি আয়ে ধীরগতি সম্মেলনে যোগ দিতে মিলওয়াকিতে পৌঁছেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

বৃষ্টির অভাবে শুকিয়ে গেছে তিস্তা নদী

লালমনিরহাট সংবাদদাতা
আপডেট : আগস্ট ২৭, ২০২২
বৃষ্টির অভাবে শুকিয়ে গেছে তিস্তা নদী

বর্ষা মৌসুমেও বৃষ্টি কম হওয়ায় পানি সংকটে শুকিয়ে গেছে তিস্তা নদী। এ কারণে লালমনিরহাটের চরাঞ্চলে ১০ হাজার হেক্টর জমিতে ব্যাহত হচ্ছে চাষাবাদ। তিস্তা ব্যারেজ সেচ প্রকল্পের আওতায় এসব জমিতে চাষাবাদ হতো। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা জানালেন, তিস্তা ব্যারেজের শাখা খালগুলোর সংস্কার চলছে। এরপর পরিস্থিতির উন্নতি হবে।

তিস্তা নদীকে কেন্দ্র করে বৃহত্তর নিলফামারী, রংপুর, দিনাজপুর ও বগুড়া জেলার অনাবাদি জমি সেচের আওতায় আনতে গড়ে তোলা হয় তিস্তা ব্যারাজ সেচ প্রকল্প। সুফলও মিলেছিল। তিস্তার পানি ব্যবহার করে ধান, গম, ভুট্টা ও সরিষাসহ বিভিন্ন মৌসুমি ফসল ঘরে তোলার সুযোগ হয় চাষীদের।

কিন্তু বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টি কম হওয়ায় তিস্তা এখন শুকনো। পানি নেই তিস্তা ব্যারেজের শাখা খালগুলোতে। ফলে লালমনিরহাটে ৪০টি চরাঞ্চলের ১০ হাজার হেক্টর জমিতে সেচ দিতে পারছেনা চাষীরা।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা জানালেন, তিস্তা ব্যারেজের সেচ প্রকল্পের মূল খালে পানি থাকলেও, সংস্কার না করায় শাখা খালগুলোয় পানি প্রবাহ কমে গেছে। তবে এগুলো সংস্কারের কাজ চলছে। বর্তমানে তিস্তায় পানি প্রবাহিত হচ্ছে ৪ থেকে ৫ হাজার কিউসেক।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ