শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর চৈত্র সংক্রান্তি শনিবার আওয়ামী লীগ পুলিশ লীগে পরিণত: মির্জা ফখরুল `বিএনপি ককটেল পার্টি করেনি, ইফতার পার্টি করেছে’ ইরান-ইসরায়েলকে সংযত থাকার আহ্বান রাশিয়াসহ পরাশক্তিগুলোর যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হওয়ার বার্তা কিমের দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ রোনালদো ৪ জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ জনের মৃত্যু ভারতীয় পণ্য বর্জন, বিএনপির রাজনৈতিক কর্মসূচী নয়: খসরু সর্বোচ্চ গোলদাতার লড়াইয়ে চলছে টান টান উত্তেজনা আটলান্টার কাছে বড় ব্যবধানে হারলো লিভারপুল রেকর্ড ১৭টি `ডাক` ইনিংস ম্যাক্সওয়েলের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়ে ২০ বিলিয়ন ডলারের উপরে পার্বত্য চট্টগ্রামে বৈসাবী উৎসব শুরু কমেনি মুরগির দাম, বেড়েছে সবজির

মোবাইল ফোনের কলড্রপে অসন্তুষ্ট খোদ বিটিআরসি, ক্ষতিপূরণের নির্দেশ

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : ডিসেম্বর ২১, ২০২১

বৃত্তান্ত প্রতিবেদক: মোবাইল ফোনের কলড্রপ, নেটওয়ার্ক না থাকা, কথা আটকে যাওয়া, শব্দ শোনা না যাওয়ার ঘটনায় অসন্তুষ্ট খোদ টেলিকমিউনিকেশন খাতের নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুটলি অথরিটি (বিটিআরসি)।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত কমিশনের এক বৈঠকে এসব কমিয়ে আনতে সংশ্লিষ্ট সকল অপারেটরকে প্রয়োজনীয় কারিগরি সক্ষমতা অর্জনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে গ্রাহকদের ক্ষতিপূরণও নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

মোবাইল ফোনের কলড্রপ, নেওটওয়ার্ক না থাকা, কথা বলতে বলতে কল আটকে যাওয়া, শব্দ শোনা না গেলেও ব্যালেন্স শূন্য হতে থাকা; এসব এখন একটু বেশিই হচ্ছে। কিন্তু গ্রাহক কোনও ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে না। গ্রাহককে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সক্ষমতা অন্যান্য মোবাইল ফোন অপারেটরের থাকলেও তা নেই রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটকের।

বিটিআরসির কমিশন বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, তিন মাসের মধ্যে টেলিটককে কলড্রপকৃত মিনিটের তথ্য সংগ্রহ করার কারিগরি সক্ষমতা অর্জন করতে হবে এবং কলড্রপের বিপরীতে গ্রাহককে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

একই সঙ্গে কলড্রপের কারণে ফেরতব্য কল মিনিট প্রদানের সক্ষমতা টেলিটক কেন অর্জন করেনি তা জানতে চাওয়া হয়।

অপরদিকে, অফনেট কলড্রপের ক্ষেত্রে কলড্রপ, অরিজিনেটিং অপারেটর, আইসিএক্স ও টার্মিনেটিং অপারেটর—এই তিন অপারেটরের মধ্যে কোন অপারেটরের জন্য সৃষ্ট হয়েছে তা নিরূপণের ক্ষেত্রে কারিগরি জটিলতা বিদ্যমান রয়েছে বলে কমিশন বৈঠকের কার্যপত্রে উল্লেখ করা হয়।

ফলে বিষয়টি সমাধানের জন্য অফনেট কলড্রপের ক্ষতিপূরণের দায়ভার কোন অপারেটরের ওপর বর্তাবে এবং ভুক্তভোগী মোবাইল গ্রাহক কীভাবে ক্ষতিপূরণ পাবে তা আরও পরীক্ষার জন্য কমিটি গঠনের প্রয়োজন দেখা দেয়।

এতে আরও বলা হয়, অফনেট কলড্রপের ক্ষেত্রে কারিগরি প্রতিবন্ধকতা বিশ্লেষণের পরে নতুন করে নির্দশনা প্রদানের সিদ্ধান্ত হয় এবং ওই নির্দেশনা জারির সময় থেকে অফনেট কলড্রপের জন্য কল মিনিট ফেরতের বিষয়টি কার্যকরের কথা উল্লেখ করা হয়।

বর্তমানে কলড্রপের বিষয়টিকে ভয়াবহ উল্লেখ করে সম্প্রতি ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, অপারেটররা যা বলে, কলড্রপের হার তারচেয়ে বেশি। একটি কলে কথা শেষ করা যায় না। কয়েকবারে কথা শেষ করতে হয়। এর বিহিত অপারেটরগুলোকেই করতে হবে। গ্রাহককে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার কলড্রপ নিয়ে তার অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেছেন, কেন এটা এত বেশি হচ্ছে, তা অনুসন্ধান করা হবে।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ