শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৮:০৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কোটাবিরোধীদের আন্দোলন থামানো উচিত : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘কোটাবিরোধীদের অনেক বক্তব্য সংবিধানের মূলনীতির বিরোধী’ দেশে এখন দুর্নীতি ফাঁসের মৌসুম চলছে : রিজভী কোটা সংস্কার আন্দোলন অন্যদিকে ধাবিত করার চেষ্টা চলছে : ডিবিপ্রধান কোটাবিরোধীদের ভাঙচুর-হামলার জেরে পুলিশের মামলা দায়ের ‘ব্যাংকিং খাত এখন দুরবস্থার মধ্যে রয়েছে’ ডিসেম্বরেও উৎপাদনে যাচ্ছে না পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে দিল্লি, মুম্বাইসহ বেশ কিছু রাজ্য গাজার মানবিক অঞ্চলে বিমান হামলা, নিহত ৭১ গাজার ৭০ হাজারের বেশি মানুষ হেপাটাইটিসে আক্রান্ত নেপালে ১৬ বছরে ১৪ বার সরকার বদল? যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপ আয়োজন করে কোটি টাকা খুইয়েছে আইসিসি ‘পদক নয়, নিজেদের উন্নতি করতে অলিম্পিকে যাচ্ছে বাংলাদেশ’ সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার : শিক্ষার্থীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

যানবাহনের চাপ ও দুর্ঘটনার ঝুঁকি বেড়েছে

খুলনা সংবাদদাতা
আপডেট : আগস্ট ২৪, ২০২২
যানবাহনের চাপ ও দুর্ঘটনার ঝুঁকি বেড়েছে

পদ্মা সেতু চালুর পর খুলনাসহ দক্ষিণাঞ্চলের সড়কে যানবাহনের চাপ বেড়েছে। কিন্তু এই অঞ্চলের সড়কগুলোর বেশিরভাগ অপ্রশস্ত। ফলে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হয় যানবাহন ও পথচারীদের।

ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু হয়ে খুলনা অঞ্চলের সাথে সংযুক্ত বিভিন্ন জেলার সড়কে যানবাহনের চাপ বেড়েছে। প্রতিদিনই নতুন নতুন পরিবহন যুক্ত হচ্ছে খুলনা-ঢাকা- চট্রগ্রাম রুটে। মোংলা বন্দরের গুরত্ব বাড়ায় চাপ বেড়েছে খুলনা মোংলা সড়কেও। সড়কপথে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরা ভোমরা স্থল বন্দরেও যানবাহন চলাচল বেড়েছে। চালু হয়েছে দুরপাল­ার যানবাহন। এনকি যশোর থেকেও খুলনার এসব সড়ক দিয়ে বেড়েছে ঢাকামুখী যানবাহনের সংখ্য।

কিন্তু এসব এলাকার সড়কগওলো বেশিরভাগই সরু ও একমুখী। ফলে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হয় যানবাহন ও পথচারীদের। তাই সড়ক ও সেতু কারভাটগুলোও প্রশস্ত করার দাবি যাত্রী ও চালকদের।

এসব সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখতে বেশ কিছু প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে বলে জানায় সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

খুলনা সড়ক বিভাগের আওতায় ৪১৪ কিলোমিটার সড়ক আছে। এরমধ্যে জাতীয় মহাসড়ক ৬২ কিলোমিটার, আঞ্চলিক মহাসড়ক ৬১ কিলোমিটার এবং জেলা সড়ক ২৯১ কিলোমিটার।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ