শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আমেরিকা থেকে ফিরে যে বার্তা দিলেন আমির খসরু কেন্দ্রীয় কারাগারের কোয়ারেন্টিনে মির্জা ফখরুল ও আব্বাস ‘সমাবেশকে বাধাগ্রস্ত করতেই ফখরুল ও আব্বাসকে কারাগারে পাঠিয়েছে সরকার’ খেলার কথা বলে আ.লীগ ফাউল খেলছে : নুর মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে সতর্ক করলেন কৃষিমন্ত্রী পরাজয় কার হলো, বিএনপিকে প্রশ্ন কাদেরের সরকার দেশকে গৃহযুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে: গণতন্ত্র মঞ্চ সরকারবিরোধী সব রাজনৈতিক দলকে সমাবেশে ডাকলো বিএনপি অভিষিক্ত আবরারের ঘূর্ণিতে মুলতানে ধসে পড়ল ইংল্যান্ড নিউইয়র্ক টাইমসের কর্মীরা ৪০ বছরের মধ্যে প্রথম ধর্মঘটে রাজধানীর গোলাপবাগে সমাবেশের অনুমতি পেল বিএনপি একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু ১ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতি বন্ধে রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাব- টিআইবি রংপুর-ঢাকা বাস চলাচল বন্ধ ঢাকার প্রবেশ পথগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার

যেকোনো সময় তুরস্কের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : ডিসেম্বর ১১, ২০২০

মার্কিন হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার ঘটনায় তুরস্কের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার কাছাকাছি অবস্থায় রয়েছে আমেরিকা। মার্কিন দুই কর্মকর্তাসহ চারটি সূত্র গতকাল বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এ কথা নিশ্চিত করেছে।

সূত্রগুলো বলছে, যেকোনো দিন তুরস্কের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা আসতে পারে। আংকারার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলে তুরস্কের সাথে ন্যাটো জোটের দূরত্ব আরো বেশি বাড়বে- এতে কোনো সন্দেহ নেই।

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে রাশিয়ার সঙ্গে তুরস্ক আড়াইশো কোটি ডলারের সামরিক চুক্তি করে। এই চুক্তির আওতায় তুরস্ক রাশিয়ার কাছ থেকে ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য এস-ফোর হান্ড্রেড ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার কথা নিশ্চিত করে। এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ব্যবহারের মাধ্যমে জঙ্গিবিমান, ক্রুজ এবং ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র সহজে ধ্বংস করা যায়। এছাড়া, ভূমিতে স্থাপিত যেকোনো স্থাপনার বিরুদ্ধেও এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা অত্যন্ত কার্যকরী।

গত বছরের জুলাই মাসে রাশিয়া তুরস্কের কাছে এস-ফোর হান্ড্রেড ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার কয়েকটি চালান সরবরাহ করে। কিন্তু আমেরিকা শুরু থেকেই তুরস্ককে এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনা এবং চালু করার বিরুদ্ধে সতর্ক করে আসছে। আমেরিকা বলছে ন্যাটো জোটের সামরিক সরঞ্জাম এবং মার্কিন এফ-৩৫ জঙ্গিবিমানের সঙ্গে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মানানসই হতে পারে না। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার কাছে মার্কিন এফ-৩৫ বিমানের দূর্বলতা প্রকাশ হয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকেই মূলত আমেরিকা তুরস্কের ওপরে এই ব্যবস্থা না কেনার চাপ সৃষ্টি করেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ