শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৪:৪৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ন্যায়বিচার পাওয়া সাংবিধানিক অধিকার : প্রধান বিচারপতি রাশিয়া ও ইরান একক ব্রিকস মুদ্রা তৈরির কাজ করছে: ইরান নারী স্পিকারদের সম্মেলন বৈশ্বিক গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুর অনবদ্য প্লাটফর্ম: স্পিকার নরসিংদীতে বজ্রপাতে প্রাণ গেল মা-ছেলেসহ ৪ জনের শেয়ারবাজার ছাড়লেন আরও ২১৮৮ বিনিয়োগকারী জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে কেউ যেন বৈষম্যের শিকার না হন : রাষ্ট্রপতি ফের শাহরুখ খানের দলে সাকিব বিএনপি ভোট বর্জন করে গণতন্ত্রের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে: দুদু সরকারের ধারাবাহিকতার কারণে এতো উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে : কাদের সাতক্ষীরায় ট্রাক উল্টে নিহত দুই টেক্সাসের হাস্টনে শক্তিশালী হারিকেনের আঘাত অর্থপাচার করলে কোন ছাড় নেই: ওবায়দুল কাদের প্রাথমিকে ২৯ শিক্ষার্থীর বিপরীতে একজন শিক্ষক গাজায় দীর্ঘমেয়াদে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হামাস বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেয়া বন্ধ করছে মালয়েশিয়া

রাশিয়ার স্বর্ণ আমদানিতে ৪ দেশের নিষেধাজ্ঞা

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ২৬, ২০২২
কমল স্বর্ণের দাম, কাল থেকেই কার্যকর

এবার রাশিয়া থেকে স্বর্ণ আমদানি নিষিদ্ধ করল যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও কানাডা। এখন থেকে নতুন করে আর রুশ মূল্যবান ধাতুটি আনবে না এই চার দেশ। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাত দিয়ে বিজনেস রেকর্ডারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়, ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালানোয় রাশিয়াকে অনবরত কোণঠাসা করার প্রচেষ্টা হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। রোববার (২৬ জুন) ব্রিটিশ সরকার এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। আজ জার্মানিতে গ্রুপ অব সেভেন নেতাদের বৈঠকের আগে এই বিবৃতি দেয়া হয়।

এতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান ও কানাডার এই নিষেধাজ্ঞা শিগগিরই কার্যকর হবে। রাশিয়ার নতুন খনি থেকে উত্তোলন করা এবং পরিশোধন করা-উভয় স্বর্ণের ক্ষেত্রে এটি প্রযোজ্য হবে।

তবে কিছুদিন আগে আমদানির অর্ডার দেয়া রাশিয়ার স্বর্ণ এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে। গত বছর ১২ দশমিক ৬ বিলিয়ন পাউন্ড মূল্যের স্বর্ণ রপ্তানি করে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দেশ। পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার প্রভাবে অর্থনেতিক ক্ষতির পরিমাণ কাটিয়ে উঠতে সম্প্রতি বুলিয়ন মার্কেট (যেখানে সোনা, রূপা কেনাবেচা হয়) কিনেছে তারা।

বিবৃতিতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, আজ আমরা যে পদক্ষেপের ঘোষণা দিয়েছি, তা রাশিয়ার সাম্রাজ্যবাদী নীতিতে আঘাত করবে। এছাড়া পুতিনের যুদ্ধ মেশিনের কেন্দ্রে আঘাত হানবে।

তিনি বলেন, ইউক্রেনে যুদ্ধ চালাতে পুতিনের অর্থ প্রাপ্তির জায়গাগুলো বন্ধ করা দরকার। যুক্তরাজ্য ও আমাদের মিত্ররা আপাতত সেই চেষ্টা করছে।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ