মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭:২৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
পঞ্চগড়ে মন্দিরগামীদের নিয়ে নৌকাডুবি, ২৪ জনের লাশ উদ্ধার, অনেকেই নিখোঁজ ডিএনসিসি মেয়র, ওয়াসা এমডিকে কারাগারে পাঠাতে চান নদী কমিশন চেয়ারম্যান নতুন মূল্য নির্ধারণ: পাম অয়েলে কমলো ১২ টাকা, চিনিতে ৬ টাকা বেনজীরের বিদায়, পুলিশের নতুন আইজি মামুন, র‌্যাবের ডিজি খুরশীদ ডলারে অতিরিক্ত মুনাফার অভিযোগ থেকে মুক্ত ছয় ব্যাংকের ট্রেজারি কর্তারা শত অনিয়মের আখড়া ছিল ই-ভ্যালি, ছিলনা আয়-ব্যয়ের হিসাব ১৬ কোটি মানুষের কাছে কৃতজ্ঞতা সাফজয়ী অধিনায়ক সাবিনার ল্যাব থাকলেও টেস্ট ছাড়াই হালাল সনদ দেয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইন্টারন্যাশনাল লিজিং ও সোনার বাংলা ক্যাপিটাল’র আমানত-দায় শেয়ারে রূপান্তর, চুক্তি সকল শক্তি দিয়েও নদী দখলকারীদের উচ্ছেদ করা যাচ্ছেনা: টুকু হংকংকে হারিয়ে সুপার ফোর নিশ্চিত করল ভারত প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা ষড়যন্ত্রে সরকারি দলের লোকজন জড়িত হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া বিএনপি-জামাতের সম্পর্ক ভেতরে অটুট: কাদের দেশে জ্বালানি তেলের নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ অব্যাহত থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

সারা জীবন যার হাত ধরে চলেছেন তারই হাত ধরলেন ফারুকী

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : আগস্ট ১২, ২০২২
সারা জীবন যার হাত ধরে চলেছেন তারই হাত ধরলেন ফারুকী

জনপ্রিয় চলচ্চিত্র নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী এখন বেশ আলোচনায় আছেন। ফারুকী নির্মিত ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমার সেন্সরশিপ নিয়ে জটিলতা দেখা দেওয়ায় অনেকে অনেক কথা বলছেন। তবে এসবের ভিড়েও আজ অন্য কারণে সামনে এসেছেন ফারুকী। ফেসবুক পোস্টে ঢেলে দিয়েছেন নিজের অতীতের আবেগ। যেন স্বপ্ন ছোঁয়ার খুশি পেয়েছেন ফারুকী।

বৃহস্পতিবার মাঝরাতে নিজের ফেসবুক পেইজে আরেক জ্ঞানী নির্মাতা ফরিদুর রেজা সাগরকে নিয়ে লিখেছেন আবেগমাখা এক লেখা। তিনি লিখেছেন, ‘কালকে চ্যানেল আই-য়ের দোতলা থেকে নামতেছি আমি, সাগর ভাই, আরো কয়েকজন। সিঁড়ি পর্যন্ত এসে সাগর ভাই অজান্তেই আমার হাত ধরতে গিয়ে আবার অন্য কাউকে যেনো খুঁজতে লাগলেন। আমি বুঝতে পারলাম কারো একজনের হাত ধরে নামলে ওনার জন্য সহজ হয়। কিন্তু সংকোচে আমার হাত ধরতে চাইলেন না।’

এখানেই শেষ নয়, ফারুকী আরও লেখেন, ‘আমি হাত বাড়াইয়া বললাম, “সাগর ভাই, ধরেন”! উনি বলেন, “না, না, তুমি তো ব্যালেন্স রাখতে পারবা না!” বললাম, “আমি ব্যায়াম করি নিয়মিত, ধরেন”!’

এরপর ফারুকী লিখেছেন, ‘তারপর উনি আমার হাত ধরে নামলেন পরম নিশ্চিন্তে। সারা জীবন যে মানুষটার হাত ধরে চললাম, আজকে উনাকে যখন হাতটা দিতে পারছি ধরার জন্য, আমার কী অনুভুতি হইছিলো বোঝাইতে পারবো না। আমরা হয়তো উনার হাত ধরছিলাম প্রতীকী অর্থে, আর উনি ধরছেন আক্ষরিক অর্থে, কিন্তু এর মধ্যে যে অনির্বচনীয় যোগ তৈরি হইছে, সেটা আমার জীবনের এক অন্যতম স্মৃতি হয়ে থাকবে। সাগর ভাইকে আমি ভাই ডাকি, তিশা ডাকে মামা। আমি জানিনা ইলহাম কী ডাকবে। কিন্তু ইলহাম একটু বুঝতে যখন শিখবে, তখন জানবে তার খেলনা ভান্ডারের বড় কালেকশনটাই সাগর নানার দেয়া।

ফরিদুর রেজা সাগরকে নিয়ে ফারুকী শেষদিকে লেখেন, ‘ইনি হচ্ছেন সেই মানুষ, যিনি অসুখের জন্য দুনিয়ার আরেক মাথায় চিকিৎসা নিতে থাকলেও খেয়াল থাকে ইলহাম নামে একজন আছে যার জন্য খেলনা কিনতে হবে। এই খেয়াল উনি আরো হাজার হাজার মানুষের জন্যই রেখে আসছেন। এটাই উনি!’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ