সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ১০:৪৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আদালত ছাড়া কোটা সংস্কার হবে না- কাদের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় মির্জা ফখরুলের নিন্দা ছাত্রলীগের দখলে ঢাবি, অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী আহত গণহত্যার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বে ঐক্যের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর মেয়েরা রাজাকার বলে স্লোগান দেয়, কোন দেশে বাস করছি: প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ভেসে যাবে সরকার: রিজভী ১২ দলীয় জোটে যোগ দিলো বিকল্পধারাসহ নতুন ২ দল ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত সিরাজগঞ্জের তাঁত শিল্প আইনশৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে শক্ত হাতে মোকাবিলা হবে: ডিএমপি এবার প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলন কোটা আন্দোলন : এবার রাজপথে মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যক্তিগত সহকারী ও তার স্ত্রীর হিসাব স্থগিত বছরে প্রায় ৩০ কোটি টাকার কৃত্রিম ফুল আমদানি জলাবদ্ধতা রাজধানী নিয়ে উদ্বিগ্ন নগরবাসী

সিজনাল জ্বরে ভুগছেন বেগম খালেদা জিয়া

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : মে ২২, ২০২২

সিজনাল জ্বরে ভুগছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তাঁর ব্যক্তিগত কর্মকর্তারা বলছেন, জ্বরের মাত্রা খুব বেশি না। উনি মোটামুটি সুস্থ আছেন। তবে ম্যাডাম রাজি হলে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হতে পারে।

রবিবার (২২ মে) খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার বিষয়ে ব্যক্তিগত সচিব এবি এম আব্দুস সাত্তার সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমিও আপনার মতো শুনেছি ম্যাডামের জ্বরের বিষয়টি। তবে চিকিৎসকরা এখন পর্যন্ত এই বিষয়ে আমাকে কিছু জানায়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক খালেদা জিয়ার আরেক কর্মকর্তা বলেন, তাপমাত্রা একটু এদিক-সেদিক হলে উনার মতো বয়সীদের শরীরে জ্বর আসাটাই স্বাভাবিক। এটা সিরিয়াস কিছু না। সিজনাল জ্বর।

তিনি আরও বলেন, ম্যাডাম রাজি হলে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তাকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হতে পারে। যেটা আগেও করা হয়েছিলো।

খালেদা জিয়া দুর্নীতির অভিযোগে দীর্ঘদিন কারাবন্দি থাকার পর করোনার মহামারির মধ্যে ২০২০ সালের ২৫ মার্চ সরকারের নির্বাহী আদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল হাসপাতালে থেকে ছয় মাসের জন্য মুক্তি পান খালেদা জিয়া। এরপর একাধিকবার তাঁর মুক্তির মেয়াদ বাড়ায় সরকার। এ সময়ের মধ্যে তিন দফায় প্রায় ৬ মাস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী। কারামুক্ত হওয়ার পর থেকে খালেদা জিয়া গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় আছেন।

সিজনাল জ্বরে ভুগছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তাঁর ব্যক্তিগত কর্মকর্তারা বলছেন, জ্বরের মাত্রা খুব বেশি না। উনি মোটামুটি সুস্থ আছেন। তবে ম্যাডাম রাজি হলে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হতে পারে।

রবিবার (২২ মে) খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার বিষয়ে ব্যক্তিগত সচিব এবি এম আব্দুস সাত্তার সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমিও আপনার মতো শুনেছি ম্যাডামের জ্বরের বিষয়টি। তবে চিকিৎসকরা এখন পর্যন্ত এই বিষয়ে আমাকে কিছু জানায়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক খালেদা জিয়ার আরেক কর্মকর্তা বলেন, তাপমাত্রা একটু এদিক-সেদিক হলে উনার মতো বয়সীদের শরীরে জ্বর আসাটাই স্বাভাবিক। এটা সিরিয়াস কিছু না। সিজনাল জ্বর।

তিনি আরও বলেন, ম্যাডাম রাজি হলে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তাকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হতে পারে। যেটা আগেও করা হয়েছিলো।

খালেদা জিয়া দুর্নীতির অভিযোগে দীর্ঘদিন কারাবন্দি থাকার পর করোনার মহামারির মধ্যে ২০২০ সালের ২৫ মার্চ সরকারের নির্বাহী আদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল হাসপাতালে থেকে ছয় মাসের জন্য মুক্তি পান খালেদা জিয়া। এরপর একাধিকবার তাঁর মুক্তির মেয়াদ বাড়ায় সরকার। এ সময়ের মধ্যে তিন দফায় প্রায় ৬ মাস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী। কারামুক্ত হওয়ার পর থেকে খালেদা জিয়া গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় আছেন।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ