সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ১১:০১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আদালত ছাড়া কোটা সংস্কার হবে না- কাদের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় মির্জা ফখরুলের নিন্দা ছাত্রলীগের দখলে ঢাবি, অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী আহত গণহত্যার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বে ঐক্যের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর মেয়েরা রাজাকার বলে স্লোগান দেয়, কোন দেশে বাস করছি: প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ভেসে যাবে সরকার: রিজভী ১২ দলীয় জোটে যোগ দিলো বিকল্পধারাসহ নতুন ২ দল ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত সিরাজগঞ্জের তাঁত শিল্প আইনশৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে শক্ত হাতে মোকাবিলা হবে: ডিএমপি এবার প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলন কোটা আন্দোলন : এবার রাজপথে মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যক্তিগত সহকারী ও তার স্ত্রীর হিসাব স্থগিত বছরে প্রায় ৩০ কোটি টাকার কৃত্রিম ফুল আমদানি জলাবদ্ধতা রাজধানী নিয়ে উদ্বিগ্ন নগরবাসী

স্বর্ণ খনি শ্রমিকদের লড়াইয়ে প্রাণ গেল ১০০ জনের

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : মে ৩১, ২০২২
দুই ব্যক্তির লড়াইয়ের কারণে প্রাণ গেল ১০০ জনের

আফ্রিকার দেশে চাদের উত্তরাঞ্চলীয় প্রত্যন্ত এলাকা অনানুষ্ঠানিক স্বর্ণ খনি শ্রমিকদের মধ্যে লড়াইয়ে প্রায় ১০০ জন নিহত হয়েছেন। আর ৪০ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। খবর বিবিসির।

চাদের প্রতিরক্ষামন্ত্রী দাউদ ইয়ায়া ব্রাহিম বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘দুই ব্যক্তির মধ্যে একটি বিরোধের অবনতি’ হওয়ায় এই সংঘর্ষ হয়। লিবিয়ার সীমান্তের কাছে পার্বত্য কৌরি বৌগৌদি জেলায় চাদ এবং এর প্রতিবেশী দেশগুলোর খনি শ্রমিকরা মূল্যবান ধাতব সংগ্রহে আসে।

গত সপ্তাহে এই সংঘর্ষ হয়েছে। তবে এ ঘটনার বিস্তারিত এখন বেরিয়ে আসছে। কিছু গ্রুপ বলছে, সরকারি হিসাবের চেয়ে বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। কিছু মৃত্যুর জন্য নিরাপত্তা বাহিনীকেও দায়ী করেছে তারা।

রাজধানী এন’জামেনা থেকে প্রায় এক হাজার কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে প্রথম যখন এই সহিংসতার খবর সামনে আসে, এর প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই ওই এলাকায় একটি মিশন পাঠায় সরকার।

জেনারেল ব্রাহিমকে উদ্ধৃত করে এএফপি জানিয়েছে, একটি বড় সামরিক দল এলাকায় শান্তি ফিরিয়ে এনেছে। তিনি আরও বলেন, মৌরিতানিয়া এবং লিবিয়ার লোকজনের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়েছে।

গত সপ্তাহে চাদের জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের প্রধান মাহামত নুর ইবেদু বলেছিলেন, সংঘর্ষ ঠেকাতে যে সৈন্যদের পাঠানো হয়েছিল তারা ‘মানুষজনের ওপর গুলি চালিয়েছে’।

তিনি এবং একজন বিরোধী নেতা বলেছেন, এ ঘটনায় ২০০ জন নিহত হয়েছেন। কিন্তু কর্তৃপক্ষ এটি অস্বীকার করেছে এবং বলেছে যে এজন্য তারা দায়ী নয়। এদিকে এই সংঘর্ষের পর কৌরি বৌগৌদিতে সব সোনা খনির কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ