সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২:১০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
জি বাংলার পর দেশে স্টার জলসাও সম্প্রচারে নোয়াখালীর পরিস্থিতি শান্ত, সতর্ক অবস্থায় পুলিশ চট্টগ্রামের বাসায় বিস্ফোরণ, দেয়াল ভেঙে একজনের মৃত্যু ঢাকা ও নোয়াখালীতে জুমার নামাজের পর সংঘর্ষ, ১ জনের মৃত্যু আফগানিস্তানে মসজিদে বোমা হামলা, নিহত ৩২ মাগুরায় ইউপি নির্বাচন ঘিরে সংঘর্ষে নিহত ৪ স্কুলশিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলক করোনার টিকা দেওয়া শুরু বাংলাদেশ সীমান্তে বিএসএফের ক্ষমতা বাড়াল ভারত হাজীগঞ্জে ১৪৪ ধারা জারি, তদন্ত কমিটি গঠন দেশের ২২ জেলায় বিজিবি মোতায়েন রাষ্ট্রায়ত্ব চার ব্যাংকে বাড়ছে বাধ্যতামূলক ঋণ ঘরে বসেই ভবন নির্মাণে রাজউকের নকশা অনুমোদন, ভূমি ব্যবহার ছাড়পত্র! জাতীয় প্রেস ক্লাবে রাজনৈতিক সমাবেশ-কর্মসূচি বন্ধ ঘোষণা মুদি আর চা দোকানি’ মিলে মানব পাচার চক্র: র‍্যাব নাজিরপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি খুলছে না পাটুরিয়া ঘাটের জট, ৩-৪দিন আটকা থাকছে পণ্যবাহী ট্রাক সাবেক স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর এপিএস আটক যতই ঝুঁকি আসুক উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে হবে: প্রধানমন্ত্রী দেশে নকিয়া মোবাইল ফোনের  পরীক্ষামূলক উৎপাদন শুরু, আসছে শাওমিও দেশে নতুন কোটিপতি ১৩,৮৮১, মোট কোটিপতি হিসাব ৯৯,৯১৮

স্বাধীনতা সড়ক দুই দেশের সম্পর্কের সেতুবন্ধন: এলজিআরডি মন্ত্রী

রিপোর্টারের নাম : / ২৩৫ জন দেখেছেন
আপডেট : সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২:১০ পূর্বাহ্ন

মেহেরপুর প্রতিনিধি: মেহেরপুরের মুজিবনগরে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত ‘স্বাধীনতা সড়ক’ বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যে সম্পর্কের সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম।

শনিবার সকালে মেহেরপুরে মুজিবনগরে নির্মিত ‘স্বাধীনতা সড়ক’ পরিদর্শনে শেষে তাজুল সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

এ সময় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ এবং এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী আব্দুর রশীদ খান তার সঙ্গে ছিলেন।

সড়কটির নির্মাণ কাজ শেষ এবং উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশ সফরের সময় দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী স্বাধীনতা সড়কটির উদ্বোধন করবেন।

মুজিবনগরের স্মৃতি রক্ষার্থে, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে সমৃদ্ধ করতে মেহেরপুরের মুজিবনগরে ঐতিহাসিক স্বাধীনতা সড়কটি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সড়কটি পরিদর্শন করে এর কার্যক্রম দ্রুত বাস্তবায়নের নির্দেশনা দেন মন্ত্রী। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর-এলজিইডিসহ কাজটি বাস্তবায়ন করছে।

বাংলাদেশের ইতিহাসে রাস্তাটির গুরুত্ব অপরিসীম উল্লেখ করে তাজুল ইসলাম বলেন, জাতীয় চার নেতা, মুক্তিযোদ্ধা, বিশিষ্টজন এবং দেশি-বিদেশি অসংখ্য সংবাদকর্মী ভারতের কলকাতা থেকে নদীয়া হয়ে এ সড়কে মেহেরপুরের মুজিবনগর আসেন। বৈদ্যনাথতলায় যা এখন মুজিবনগর হিসেবে পরিচিত এখানেই স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পাঠ করা হয়। শপথ নেন বাংলাদেশের প্রথম সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্যবৃন্দ।  এই সড়কটি দুই দেশের মধ্যকার সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করবে।

মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের দুঃসময়ে ভারত বাংলাদেশকে বিভিন্নভাবে সাহায্য এবং সহযোগিতা করায় দেশটির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন একটি স্বাধীন-সার্বভৌম দেশ । জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ দুর্বার গতিতে উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় এগিয়ে যাচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ