রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ১২:২৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বোরো মৌসুমের নতুন ১০টি জাতের ধানের নিবন্ধন ছাড় আইন প্রণয়নসহ নির্বাচন কমিশনের আর্থিক অবস্থা শক্তিশালী করার প্রস্তাব আওয়ামী লীগের ৫০ ঊর্ধ্ব বয়সীদের করোনা ভ্যাকসিনের বুস্টার ডোজ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী নির্বাচন কমিশন নিয়োগে আইনের খসড়ায় মন্ত্রিসভার চূড়ান্ত অনুমোদন ডিসি সম্মেলন শুরু মঙ্গলবার, মাঠ প্রশাসনের কর্তারা আরো ক্ষমতা চান স্বাধীনতা বিরোধীতাকারীদের তালিকা প্রকাশে জামুকা আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর প্রতিশ্রুতিও বাস্তবায়নে পদক্ষেপ নেব: বিজয়ী নাসিক মেয়র আইভী ইভিএম কারচুপির জন্য পরাজয়: তৈমুর বোরো উৎপাদনে কেজিতে সর্বোচ্চ ৬৫০ লিটার পানির প্রয়োজন: ব্রির গবেষণা ২৪ বিসিএসের (প্রশাসন) নতুন কমিটি: সভাপতি নাছির, সম্পাদক হামিদ নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন: আইভী থাকছেন নাকি তৈমুর হচ্ছেন মেয়র মালয়েশিয়ায় বিদেশি কর্মী নিয়োগে অনলাইন আবেদন ২৮ জানুয়ারি থেকে রবিবার বিকেলে বসছে সংসদের ষোড়শ অধিবেশন বিধিনিষেধ না মানলে লকডাউন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনায় আরও ৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩,৪৪৭ ২০ জানুয়ারির পর রোডমার্চ-গণসংযোগ কর্মসূচি দিচ্ছে বিদিশার জাতীয় পার্টি ক্লাইমেট স্মার্ট কৃষিপ্রযুক্তির উন্নয়নে ‘সমন্বিত প্রকল্প’ নিবে ডি-৮ ২ বছর পর হচ্ছে তিনদিনের ডিসি সম্মেলন, শুরু ১৮ জানুয়ারি জমজমাট চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন: দুই প্যানেলে প্রধান মিশা ও কাঞ্চন রাষ্ট্রপতির সংলাপে নির্বাচনী আইন প্রণয়নসহ ৫ দফা প্রস্তাব এনপিপি’র

স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সক্ষম নৌ-বিমান বাহিনী সদস্যদের পদোন্নতি দিন: প্রধানমন্ত্রী

রিপোর্টারের নাম : / ১২৩ জন দেখেছেন
আপডেট : রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ১২:২৫ অপরাহ্ন

বৃত্তান্ত প্রতিবেদক: ভবিষ্যতে দক্ষতার সঙ্গে স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষায় দায়িত্ব পালন করতে সক্ষম নৌ ও বিমান বাহিনীর সদস্যদের পদোন্নতি দিতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবিবার নৌ ও বিমান বাহিনীর ‘নির্বাচনি পর্ষদ, ২০২১’-এর সভায় অংশগ্রহণ (ভার্চুয়াল)ত নিয়ে তিনি এ নির্দেশ দেন।

ঢাকা সেনানিবাসের নৌবাহিনী এবং বিমান বাহিনী সদর দফতরে অনুষ্ঠিত এ সভায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন সরকার প্রধান।

নৌ ও বিমান বাহিনীর নির্বাচনি পর্ষদ সদস্যদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনারা পদোন্নতির জন্য যে পদ্ধতিগুলো নিয়েছেন, টিআরএসিই-ট্রেস (টেবুলেটেড রেকর্ড অ্যান্ড কম্পারেটিভ ইভালুয়েশন), আমি মনে করি, এটা একটা আধুনিক পদ্ধতি। এই পদ্ধতির ভিত্তিতেই আপনাদের জ্ঞান এবং প্রজ্ঞা দিয়ে আপনারা নির্বাচনি পর্ষদ আগামী দিনে যারা দক্ষতার সঙ্গে নৌবাহিনী এবং বিমান বাহিনী পরিচালনা করবেন, তাদের নির্বাচিত করবেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘ভবিষ্যতে আমাদের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষায় দক্ষ যারা, তারা প্রমোশন পেয়ে প্রত্যেকটি বাহিনী পরিচালনার দায়িত্ব পাবেন এবং দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ নিয়ে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নিয়ে, বাংলাদেশ চলবে এবং বাংলাদেশ হবে ভবিষ্যতে উন্নত-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ।’

সরকার প্রধান বলেন, ‘আমি এটাও বলবো যে অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, অনেকে কর্তব্য পালনে অনেক দক্ষতার পরিচয় দিতে পারেন। কাজেই তারাও যেন অবহেলিত না হন সেদিকটাও আপনারা বিবেচনা করবেন।’

করোনা মহামারির সময় বাংলাদেশ নৌবাহিনী এবং বিমান বাহিনীসহ সব প্রতিষ্ঠান অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে মানুষের পাশে দাঁড়ানোয় তিনি সবাইকে ধন্যবাদ জানান এবং বলেন, ‘দুর্যোগকালে মানুষের পাশে দাঁড়ানো প্রতিটি মানুষের দায়িত্ব। আমাদের সশস্ত্র বাহিনী সব সময় এ কাজটি করে থাকে। যখনই দুর্যোগ এসেছে, সাধারণ মানুষ আপনাদের সেবা পেয়েছে।’

নৌ-বাহিনী ও বিমান বাহিনীর প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনী আজ শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলেও অত্যন্ত সুশৃঙ্খল, দক্ষ এবং পেশাদার বাহিনী হিসেবে মর্যাদা লাভ করেছে। তাদের আত্মত্যাগ ও কর্তব্যনিষ্ঠা বাংলাদেশের জন্য বয়ে এনেছে বিরল সম্মান ও মর্যাদা, যা বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তিও অত্যন্ত উজ্জ্বল করেছে।’

নৌবাহিনী ও বিমান বাহিনীর নির্বাচনি পর্ষদের সদস্যদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের মেয়ে, আমি শুধু শাসক নই, বাংলাদেশের মানুষের সেবক। জনগণের সেবা ও কল্যাণ করাকেই আমি সব থেকে বড় কাজ বলে মনে করি। সেই ব্রত নিয়েই আমি কাজ করে যাচ্ছি এবং দেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ করার ক্ষেত্রে আপনাদের সহযোগিতা সব সময় কামনা করি।’

রাষ্ট্র পরিচালনায় যখনই প্রয়োজন হবে, তখনই সশস্ত্র বাহিনী মানুষের পাশে থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানের নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল এবং বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল শেখ আব্দুল হান্নান প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

আইএসপিআর জানায়, নৌবাহিনীর কর্মকর্তাদের পদোন্নতির লক্ষ্যে বাহিনীর সদর দফতরে আয়োজিত নৌবাহিনীর নির্বাচনি পর্ষদের মাধ্যমে ক্যাপ্টেন থেকে কমডোর, কমান্ডার থেকে ক্যাপ্টেন, লে. কমান্ডার থেকে কমান্ডার পদবিতে পদোন্নতির সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এছাড়া বিমান বাহিনীর সদর দফতরে আয়োজিত বিমান বাহিনীর নির্বাচনি পর্ষদের মাধ্যমে বিমান বাহিনীর গ্রুপ ক্যাপ্টেন থেকে এয়ার কমোডর, উইং কমান্ডার থেকে গ্রুপ ক্যাপ্টেন এবং স্কোয়াড্রন লিডার থেকে উইং কমান্ডার পদে যোগ্য প্রার্থীদের পদোন্নতির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ