মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৪১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
দেশের সব জায়গায় কাল থেকে সতর্ক পাহারায় থাকবে আ. লীগ: সেতুমন্ত্রী রাজধানীর নতুন যে জায়গায় সমাবেশের অনুমতি চেয়েছে বিএনপি হলো না ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ভোট চুরি করলে জনগণ ছেড়ে দেয় না : প্রধানমন্ত্রী রাস্তায় পেতে রাখা বোমার বিস্ফোরণে ৭ জন নিহত বিধ্বস্ত পাওয়ার গ্রিড পুনরুদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে ইউক্রেন পঞ্চগড়ে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড ছাত্রলীগের সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী জরুরি ভিত্তিতে কর্মী নেবে রাশিয়া, লাগবে না ভাড়া বাংলাদেশ বিনিয়োগের সবচেয়ে আকর্ষণীয় জায়গা- প্রধানমন্ত্রী নতুন বছরের ‘শুরুতেই’ দ্বিতীয় মেয়াদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন বাইডেন গাইবান্ধা-৫ আসনের উপনির্বাচন ৪ জানুয়ারি ব্রাজিলের জয় নিয়ে যা বললেন বুবলী অসুস্থ পেলেকে জয় উৎসর্গ করলেন নেইমাররা ফেরি চলাচল ব্যাহত দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে

৫ ব্যাংকারের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞার ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : নভেম্বর ২৯, ২০২১

 

অর্থ আত্মসাতের মামলার আসামি সাউথ-বাংলা অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স (এসবিএসি) ব্যাংক লিমিটেডের সাবেক পাঁচ কর্মকর্তা যাতে বিদেশে পালাতে না পারেন, সে জন্য আইন অনুসারে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও ইমিগ্রেশন পুলিশসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

দুদকের করা ওই মামলায় পাঁচ আসামি হাইকোর্টে আগাম জামিন আবেদন করেছিলেন। তবে তাঁরা আদালতে হাজির হননি। এমন প্রেক্ষাপটে আজ সোমবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

 

ওই পাঁচ আসামি হলেন এসবিএসি ব্যাংকের খুলনা শাখার সাবেক এমটিও তপু কুমার সাহা, রাজউক অ্যাভিনিউ শাখার সিনিয়র অফিসার বিদ্যুৎ কুমার মণ্ডল, রাজউক শাখার অপারেশন ম্যানেজার মঞ্জুরুল আলম, খুলনা শাখার ক্রেডিট ইনচার্জ মো. নজরুল ইসলাম ও শাখাটির সিনিয়র অফিসার মারিয়া খাতুন।

বিজ্ঞাপন

অস্তিত্বহীন প্রতিষ্ঠানের নামে ঋণ নিয়ে বিদেশে পাচারের অভিযোগে গত ২১ অক্টোবর এসবিএসি ব্যাংক লিমিটেডের সাবেক চেয়ারম্যান এস এম আমজাদ হোসেনসহ ব্যাংকের সাতজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলাটি করে দুদক। মামলায় তাঁদের বিরুদ্ধে ২০ কোটি ৬০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ আনা হয়।

আদালতে আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. হুমায়ুন কবির। দুদকের পক্ষে আইনজীবী খুরশীদ আলম খান ও রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আমিন উদ্দিন মানিক শুনানিতে ছিলেন।

পরে আমিন উদ্দিন মানিক প্রথম আলোকে বলেন, দুদকের মামলায় ওই পাঁচ আসামি আগাম জামিনের আবেদন করেন। আবেদন শুনানির জন্য বেশ কয়েকবার কার্যতালিকায় এলেও তাঁরা হাজির হননি। সোমবার তাঁদের পক্ষে একজন আইনজীবী জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি বিবেচনায় খারিজের আরজি জানান। আদালত জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি বলে খারিজ করে দিয়েছেন। ওই পাঁচ আসামি যাতে বিদেশে পালিয়ে যেতে না পারেন, সে জন্য আইন অনুসারে ব্যবস্থা নিতে ইমিগ্রেশন পুলিশ, দুদক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ