সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ১১:২৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
আদালত ছাড়া কোটা সংস্কার হবে না- কাদের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় মির্জা ফখরুলের নিন্দা ছাত্রলীগের দখলে ঢাবি, অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী আহত গণহত্যার বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বে ঐক্যের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর মেয়েরা রাজাকার বলে স্লোগান দেয়, কোন দেশে বাস করছি: প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ভেসে যাবে সরকার: রিজভী ১২ দলীয় জোটে যোগ দিলো বিকল্পধারাসহ নতুন ২ দল ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্ত সিরাজগঞ্জের তাঁত শিল্প আইনশৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে শক্ত হাতে মোকাবিলা হবে: ডিএমপি এবার প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলন কোটা আন্দোলন : এবার রাজপথে মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যক্তিগত সহকারী ও তার স্ত্রীর হিসাব স্থগিত বছরে প্রায় ৩০ কোটি টাকার কৃত্রিম ফুল আমদানি জলাবদ্ধতা রাজধানী নিয়ে উদ্বিগ্ন নগরবাসী

সীতাকুণ্ডের অগ্নিকাণ্ড কোনো দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড: রুমিন ফারহানা

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ৭, ২০২২
সীতাকুণ্ডের অগ্নিকাণ্ড কোনো দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড: রুমিন ফারহানা
সীতাকুণ্ড অগ্নিকাণ্ড কোনো দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড: রুমিন ফারহানা

বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছেন, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা কোনো দুর্ঘটনা নয়। এটা হত্যাকাণ্ড। সোমবার (৬ জুন) জাতীয় সংসদে এ মন্তব্য করেন তিনি।

রুমিন ফারহানা বলেন, কেন আমি এটাকে হত্যাকাণ্ড বলছি। বিস্ফোরক পরিদপ্তর চট্টগ্রামের পরিদর্শক তোফাজ্জল হোসেন জানান, বিএম কনটেইনার ডিপোতে দাহ্য পদার্থ রাখা হয়, এটি আমাদের জানানো হয়নি। এই ধরনের পণ্য সংরক্ষণের জন্য বিশেষ ধরনের অবকাঠামো প্রয়োজন। কিন্তু ডিপোতে সেই ধরনের কোনো ব্যবস্থা ছিল না। অনিয়মের কথা নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রীও গণমাধ্যমে স্বীকার করেছেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে যেহেতু দায়িত্ব স্বীকার করে পদত্যাগের কোনো সংস্কৃতি নেই, সে জন্য আমি নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রীর পদত্যাগ চাইছি না।

বিএনপির এই সংসদ সদস্য আরও বলেন, ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক লে. কর্নেল রেজাউল করিম স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন, কনটেইনারের দায়িত্বশীল কেউ বা মালিকপক্ষের কেউ জানায়নি, এখানে কেমিক্যাল রাখা আছে। সেটা জানা থাকলে অগ্নি নির্বাপকের ব্যবস্থা একেবারেই ভিন্ন হতো। তাতে বিস্ফোরণের সম্ভাবনা অনেক কমে যেত।

তিনি বলেন, কনটেইনারের থেকে নিরাপদ দূরত্বে না থেকে বিস্ফোরণের কারণে যে ১২ জন ফায়ার কর্মী মারা গেছেন তা হয়তো হতো না। এই জীবনগুলো ঝরে গেছে স্রেফ কনটেইনার ডিপোর মালিকের চরম উদাসীনতায়।

তিনি আরও বলেন, তিনি অনুমোদন ছাড়াই ডিপো তৈরি করেছেন, সেখানে অনুমোদন না নিয়ে কেমিক্যাল রেখেছেন। এমনকি সেখানে যখন আগুন লেগেছে, যখন আগুন নেভানোর জন্য যাওয়া হয়েছে তখন কেমিক্যালের বিষয়ে কোনোরকম কোনো অবহত তিনি করেননি। এই খুঁটির জোর তিনি কোথায় থেকে পেলেন? তিনি এ কারণেই এই জোর পেলেন, এই কোম্পানির ম্যানেজিং ডিরেক্টর মুজিবুর রহমান চট্টগ্রাম দক্ষিণ আওয়াম লীগের কোষাধ্যক্ষ।


এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ